তালাক দেয়া স্বামীর বিরুদ্ধে মারপিট ও শ্লীলতাহানীর অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক:তালাক দেয়া স্বামী, তার ভাই এবং মায়ের বিরুদ্ধে মারপিট ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ আনলেন পারভীন আক্তার নামে এক নারী। তিনি যশোর শহরের শংকরপুর হিজড়া বাড়ির পাশের মৃত কাজী আক্তার হোসেনের মেয়ে।
আসামিরা হলো শংকরপুর গোলপাতা মসজিদ এলাকার বাবলু শেখের ছেলে শ্রাবণ শেখ হাসিব, তার ভাই সাজেদুর রহমান সাজিদ এবং মা ডলি বেগম।
এজাহারে পারভীন আক্তার উল্লেখ করেছেন, আসামি হাসিব তার তালাক দেয়া স্বামী। তাকে মারপিট এবং সঠিকভাবে ভরণ পোষণ না দেয়ার কারণে ৮ মাস আগে তিনি হাসিবকে তালাক দেন। এই কারণে হাসিব বিভিন্ন সময় তাকে হুমকি দিয়ে আসছে। গত ২ সেপ্টেম্বর দুপুরে তিনি শংকরপুর থেকে বাড়ি যাচ্ছিলেন। সে সময় ওই এলাকার লোকমানের বাড়ির সামনে পৌছালে আসামি হাসিব তাকে টেনেহেচড়ে জোর করে তাদের বাড়ির উঠানে নিয়ে যায়। এবং তার ভাই এবং মা ডলি বেগম তাকে বেদম মারপিট করে। তার পরনের কাপড় ধরে টানাহেচড়া করে শ্লীলতাহানী ঘটায়। তার গলা থেকে ১২ আনা ওজনের একটি সোনার চেইন কেড়ে নেয়। তাকে হত্যার চেষ্টা করা হলে তিনি চিৎকার করেন। সে সময় আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করে। এই ঘটনার অভিযোগ দেয়া হলে পুলিশ তা মঙ্গলবার রাতে মামলা হিসাবে রেকর্ড করে।