রোহিঙ্গাদের ত্রাণের ট্রাক খাদে, নিহত ৯

বিডিনিউজ>
রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য ত্রাণ নিয়ে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি যাওয়ার পথে রেড ক্রিসেন্টের একটি ট্রাক খাদে পড়ে অন্তত নয়জনের মৃত্যু হয়েছে; এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১২ জন।
নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ওসি তৌহিদ কবির জানান, বিজিবির চাকঢালা সীমান্ত চৌকির কাছে বড় ছনখোলায় বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ৮টার দিকে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন – মো. মামুন (২২), মো. আব্দুল্লাহ (১৮), সৈয়দ আলম (৩০), মো. আব্দুল জলিল (৩৫), মো. আব্দুলা (২৫), সুরত আলম (৪০), আব্দুল মাবুদ (৪০), সুদর্শন বড়ুয়া (৪৫) ও মো. সুলতান আহম্মদ (৪৫)।
বান্দরবানে প্রায় ৫০ হাজার রোহিঙ্গা রয়েছে।
নাইক্ষ্যংছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল হোসেন চৌধুরী বলেন, ট্রাকটি কক্সবাজারের উখিয়া থেকে মিয়ানমার সীমান্তের কাছে বড় ছনখোলায় রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের জন্য ত্রাণ নিয়ে যাচ্ছিল।
“পথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই ছয়জন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়।”
হতাহত সবার বাড়ি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় জানিয়ে তিনি বলেন, তারা রেড ক্রিসেন্টের ত্রাণ বিতরণ কাজে নিয়োজিত ছিলেন।
দুর্ঘটনায় আরও ১২ জন আহত হলে প্রথমে তাদের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা হাসপাতালে, পরে কয়েকজনকে নিকটস্থ কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে জানান চেয়ারম্যান তসলিম।
আহতরা হলেন –সেলিম (৩০), সৈয়দুর রহমান (৩৫), ফয়েজ (৩০), আলী হোসেন (৫০), ইউসুফ (৩৫), আবু তাহের (৩০), বাবুল (২২), জিয়াউর রহমান (১৮), জসিম (২৫), আজিজুর রহমান (৩৫), আলী আকবর (১৮) ও সুলততান (৩৫)।
এ ঘটনায় বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি শোক প্রকাশ করেছে।
সোসাইটির চেয়ারম্যান হাফিজ আহমদ মজুমদার এক বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিত এ ঘটনার জন্য সোসাইটির ব্যবস্থাপনা পর্ষদের সব সদস্য শোকাহত ও মর্মাহত।
নিহত ও আহত শ্রমিকদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে।
বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে গত ২৪ অগাস্ট রাতে কয়েকটি পুলিশ পোস্ট ও একটি সেনাক্যাম্পে হামলার পর দেশটির সেনাবাহিনী রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে নতুন করে দমন অভিযানে নামে।
গত প্রায় এক মাসে সোয়া চার লাখের বেশি রোহিঙ্গা নতুন করে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। এর আগে আরও চার লাখের মতো রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসে রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ৫০ হাজার রয়েছে বান্দরবানে।