যশোরে শ্রমিকলীগের সম্মেলন> বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা অর্থনৈতিক মুক্তি এনে দিয়েছেন : পীযুষ কান্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক>
এক যুগ পর শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে জাতীয় শ্রমিকলীগ যশোর জেলা শাখার দ্বিবার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনে সভাপতি পদে আব্দুল আজিজ এবং সাধারণ সম্পাদক পদে নাছির উদ্দিন নির্বাচিত হয়েছেন। সকালে ঈদগাহ ময়দানে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার অ্যাড. পীযুষ কান্তি ভট্রাচার্য্য বলেছেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে সাথে মিশে রয়েছে আওয়ামী লীগের ইতিহাস। বাংলাদেশ নিয়ে কথা বলতে গেলে আওয়ামী লীগের কথা বাদ দিয়ে বলতে গেলে সেটা হবে কলস রেখে পানি আনতে যাবার মতো। তিনি বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বেঁচে থেকে আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তি দেখে যেতে পারেননি। কিন্তু তাঁর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তি এনে দিয়েছেন। তিনি বলেন বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে উঠলেও বিদেশে বসে চক্রান্ত চালিয়ে যাচ্ছে চক্রান্তকারী নেত্রী।
জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি কাজী আব্দুস সবুর হেলালের সভাপতিত্বে এই সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার, সদর আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ, শ্রমিকলীগের কার্যকরি সভাপতি ফজলুল হক মন্টু। সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহসভাপতি সাবেক পৌর মেয়র এসএম কামরুজ্জামান চুন্নু, সাংগঠনিক সম্পাদক তোফায়েল আহমেদ, বিএম জাফর, সাবেক ছাত্রলীগে নেতা আনোয়ার হোসেন বিপুল ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রওশন ইকবাল শাহ্।ী সম্মেলন পরিচালনা করেন নাছিন উদ্দিন। সম্মেলনে হাবিবুর রহমান সিরাজ বলেন ‘৭৫ এর পরে দেশে ফিরে জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে গণতন্ত্র কায়েম করেছেন। দেশকে উন্নয়নের পথে ধাবিত করেছেন। এমন সময় আবার চক্রান্ত শুরু হয়েছে । বিদেশের মাটিতে বসে মা ছেলে পাকিস্তানের গোয়েন্দাদের সাথে মিলে তাদের সব চক্রান্ত।
কাজী নাবিল আহমেদ বলেন বাংলাদেশে যত শ্রমবান্ধব কর্ম আছে তার সবই করেছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। আগামী নির্বাচনে নৌকা প্রতীক বিজয়ী করার জন্য নেতাকর্মীদের একতাবদ্ধ থাকার আহবান জানান তিনি।