শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র দলের ভেতরেই: আ. লীগ নেতা

 

নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ >

শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র দলের ‘ভেতরেই রয়েছে’ বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগেরই কেন্দ্রীয় একে নেতা।

শেখ হাসিনা (ফাইল ছবি)ক্ষমতাসীন দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল মঙ্গলবার বিকালে ঢাকার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের এক সভায় বক্তব্যে এই দাবি করেন।

জরুরি অবস্থার সময়কার ঘটনাবলি দেখিয়ে তিনি বলেন, “ষড়যন্ত্র শুধু আন্তর্জাতিকভাবে হচ্ছে না, দলের ভেতরেই শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। রাষ্ট্রের ক্রাইসিসে এই সব ষড়যন্ত্রকারীদের অবস্থা পরিষ্কার হয়ে যায়। ওয়ান-ইলেভেনের সময় আমরা তা দেখেছি।”

২০০৭ সালে জরুরি অবস্থা জারির পর সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে দলের মধ্যে সংস্কারের দাবি তুলেছিলেন কয়েকজন নেতা, যার মূল লক্ষ্য ছিল শেখ হাসিনাকে রাজনীতি থেকে বের করা।

পরে শেখ হাসিনাও বিভিন্ন সময়ে ওই সময়কার ষড়যন্ত্রের কথা বলেছিলেন। সংস্কারপন্থি হিসেবে পরিচিত ওই নেতাদের দলে ফিরিয়ে তিনি বলেন, তিনি ক্ষমা করলেও ওই সব ঘটনা ভুলে যাননি।

দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে দেশে-বিদেশে নানা ষড়যন্ত্রের কথা আওয়ামী লীগ নেতারা বলে আসছেন।

সম্প্রতি দেহরক্ষীদের দিয়ে শেখ হাসিনাকে হত্যার একটি চক্রান্তের খবর ছড়ানোর মধ্যে আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক নওফেলের ওই বক্তব্য এল। ওই খবরটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

 

শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের এই প্রস্তুতি সভায় নওফেল বলেন, “তবে যতই ষড়যন্ত্র হোক, আওয়ামী লীগের ত্যাগী রক্ত যাদের মধ্যে বহমান, তারা সকল প্রকার ষড়যন্ত্রের হাত থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগকে রক্ষা করবে। এর প্রমাণ ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগসহ সারাদেশের ত্যাগী নেতারা ওয়ান-ইলেভেনের সময় দিয়েছে।”

চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর ছেলে নওফেল দলের সিদ্ধান্ত সবাইকে মেনে চলার উপর জোর দেন।

“আওয়ামী লীগ জনগণের ম্যান্ডেট নিয়ে দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকায় নিজেদের মধ্যে মাঝে মাঝে মতানৈক্য হয়, বিভেদ হয়। তবে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ মনে করে, দল থেকেই এমপি হবেন, মন্ত্রী হবেন, মেয়র হবেন; কিন্তু আওয়ামী লীগ কোনো এমপির, মন্ত্রীর বা মেয়রের হবে না।”

দলের ঢাকা বিভাগের দায়িত্বে থাকা সাংগঠনিক সম্পাদক নওফেল কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নির্দেশ মেনে শেখ হাসিনার এবারের জন্মদিনে কোনো কেক না কেটে দিনটিতে মানবতার সেবা করতে নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে এই সভায় কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ ও দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদও বক্তব্য রাখেন।