দক্ষিণাঞ্চলে ২৫ সেতু নির্মাণে চুক্তি

বিডিনিউজ >
দেশের দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন জেলায় ২৫টি সেতু নির্মাণে দুই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি সই করেছে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর।
বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের সড়ক ভবনে ওয়েস্টার্ন বাংলাদেশ ব্রিজ ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্টের আওতায় এ সেতু নির্মাণের চুক্তি সই হয়।
জাইকা ও বাংলাদেশ সরকারের যৌথ অর্থায়নে পাঁচ প্যাকেজের এই প্রকল্পে প্রথম দফায় তিনটি প্যাকেজ বাস্তবায়ন করছে দেশীয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মনিকো লিমিটেডে ও ডিয়েনকো লিমিটেড।
প্রকল্পে ১৫৫ কোটি টাকা চুক্তিমূল্যের তৃতীয় এবং ১২৩ কোটি টাকা চুক্তিমূল্যের পঞ্চম প্যাকেজ বাস্তবায়ন করবে মনিকো লিমিটেড; আর ১৫৩ কোটি টাকা চুক্তিমূল্যের চতুর্থ প্যাকেজ বাস্তবায়নের কাজ পেয়েছে ডিয়েনকো লিমিটেড।
অনুষ্ঠানে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের পক্ষে এর প্রধান প্রকৌশলী ইবনে আলম হাসান, মনিকোর পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক শফিকুল আলম ভূঁইয়া ও ডিয়েনকোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম খোরশেদ আলম চুক্তিতে সই করেন।
এই সেতুগুলোকে ‘জন্মদিনে শেখ হাসিনার উপহার’ হিসাবে মন্তব্য করেন চুক্তি সই অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
তিনি বলেন, চুক্তির তিনটি প্যাকেজ বাস্তবায়িত হলে খুলনা, বরিশাল ও গোপালগঞ্জ অঞ্চলের সড়ক যোগাযোগ নিরাপদ, নির্ভরযোগ্য ও কার্যকর হবে। যানবাহন চলাচল সহজ ও ত্বরান্বিত হবে। সড়ক ব্যবহারকারীদের ভ্রমণের সময় ও ব্যয় হ্রাস পাবে।
চুক্তি সই অনুষ্ঠানে জানানো হয়, প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ৬১টি সেতু নির্মাণে ‘ওয়েস্টার্ন বাংলাদেশ ব্রিজ ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্ট’ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। মোট চার হাজার ৭০০ মিটার দৈর্ঘ্যের এই সেতু নির্মাণ প্রকল্পে জাইকার সহায়তা প্রায় দুই হাজার কোটি টাকা।
সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রকল্পের তিন, চার ও পাঁচ ন¤॥^র প্যাকেজে ১০টি জেলায় প্রায় চারশ ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৫টি সেতু নির্মাণের এই চুক্তি হল। তার মধ্যে তৃতীয় প্যাকেজে খুলনা অঞ্চলে নয়টি, চতুর্থ প্যাকেজে বরিশাল অঞ্চলে নয়টি এবং পঞ্চম প্যাকেজে গোপালগঞ্জ অঞ্চলে সাতটি সেতু নির্মাণ করা হবে।
প্রকল্পের আওতায় পাঁচটি প্যাকেজে ২৩ জেলায় মোট ৬১টি সেতু নির্মাণ করা হবে; বাকী ৩৬টি নির্মাণের চুক্তি আগামী মাসে হতে পারে বলে জানিয়েছেন প্রকল্পটির পরিচালক জাওয়েদ আলম।