কবি বেগম সুফিয়া কামাল স্মরণে যশোরে মহিলা পরিষদের সভা

প্রেসবিজ্ঞপ্তি>
বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভানেত্রী কবি সুফিয়া কামালের ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সোমবার যশোর জেলা শাখার কার্যালয়ে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়। স্মরণ সভায় প্রথমে ১ মিনিট নিরবতা পান করা হয়। জেলা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক সুরাইয়া শরীফের সভাপতিত্বে আলোচনা করেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হাবিবা শেফা, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক তন্দ্রা ভট্টাচার্চ্য, সহসভাপতি রোজিনা রহমান, নাসিমা বানু লিলি, আন্দোলন সম্পাদক গীতা হালদার, প্রশিক্ষণ, গবেষণা ও পাঠাগার সম্পাদক মাহমুদা খানম, স্বাস্থ্য ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম আলো, লিগ্যালএইড সম্পাদক এড. কামরুন নাহার কনা, কার্যকারী কমিটির সদস্য সুফিয়া বেগম, সদস্য সিনিয়র শিক্ষক নাজমা পারভীন হিরন, সদস্য সিনিয়র শিক্ষক সায়েদা বানু শিল্পী প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, ১৯৯৯ সালের ২০ নভেম্বর তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মানবতা, গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও অন্যায়, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার একজন সমাজসেবী ও নারী নেত্রীর নাম বেগম সুফিয়া কামাল। নারী জাগরণের পুরোধা ব্যক্তিত্ব তিনি। ১৯১১ সালের ২০জুন বরিশালের শায়েস্তাবাদে একটি অভিজাত পরিবারে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। সুফিয়া কামাল ছিলেন বাংলা ভাষার বিশিষ্ট কবি ও সাহিত্যিক। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি রাজনীতিবিদ, সাহিত্যিক ও সংস্কৃতিকর্মীদের অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন। তার বহুল গুণাবলীর কারণে বাংলার মানুষ তাকে ‘জননী সাহসিকা’ উপাধিতে ভূষিত করে। সভায় উপস্থিত ছিলেন ৩০জন।