ঢাকায় আসছে ‘কোকো’

বিনোদন ডেস্ক :

‘কোকো’ ছবির পোস্টার

গত বছরের মতো এ বছরও বেশ কয়েকটি অ্যানিমেশন ছবি দেখার সুযোগ পেয়েছেন দর্শকরা। বছর শেষ হওয়ার আগে দেখতে পাবেন আরও একাধিক ছবি। যার মধ্যে অন্যতম ‘কোকো’।

ধারণা করা হচ্ছে এটিই বছরের শেষ ব্যবসাসফল অ্যানিমেশন ছবির মর্যাদা পাবে। ওয়াল্ট ডিজনি পিকচার্সের ব্যানারে ২২ নভেম্বর আন্তর্জাতিকভাবে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘কোকো’। ২৪ নভেম্বর ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাবে ছবিটি।

অ্যাডভেঞ্চার ও সংগীতনির্ভর এ ছবিতে অ্যানিমেশন ভক্তদের জন্য থাকছে নতুন চমক। মেক্সিকোর কিশোর মিগুয়েলের শখ, বড় মিউজিশিয়ান হবার। টেলিভিশনে এরনেস্টো ডে লা ক্রজের গান শুনে নিজেই শিখে ফেলে গিটার বাজানো। কিন্তু মিগুয়েলের স্বপ্নে বাধা হয়ে দাঁড়ায় তার পরিবারের সদস্যরা। ১০০ বছর আগের এক ঘটনার কারণে সংগীতকে অভিশাপ মনে করে তারা। সকল বাধাকে হার মানিয়ে পুরোনো সেই রহস্য উদ্ধারে নামে মিগুয়েল। সঙ্গী শুধু পোষা কুকুর। হঠাৎ একদিন মৃতদের চাকচিক্যময় এক নগরী ‘ল্যান্ড অব দ্য ডেড’ চলে আসে তারা। সেখানেই মিগুয়েলের পরিচয় হয় ট্রিক্সটার হেক্টরের সাথে। দু’জনে মিলে সন্ধান পায় মিগুয়েলের পারিবারিক সেই অভিশপ্ত রহস্যের।

ছবিতে মিগুয়েলের চরিত্রে কণ্ঠ দিয়েছেন অ্যান্থনি গঞ্জালেস আর হেক্টরের চরিত্রে গেইল গার্সিয়া বার্নাল। আড্রিয়ান মলিনার চিত্রনাট্যে ছবিটি পরিচালনা করেছেন লি আনক্রিচ। গেল অক্টোবরে মেক্সিকোর ‘মরেলিয়া ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল’-এ ছবির প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে দর্শকদের বেশ প্রশংসা পায় ছবিটি। সমালোচকদেরও দৃষ্টি কেড়েছে এর চিত্রনাট্য, নির্মাণশৈলী ও চরিত্র গঠন। রটেন টমেটোস, দ্য হলিউড রিপোর্টার-এর রেটিংয়েও যথেষ্ট ভালো অবস্থানে রয়েছে ‘কোকো’। তাই নির্মাতা, প্রযোজকরাও বেশ আশাবাদী ছবির সাফল্য নিয়ে।