দুর্নীতির অভিযোগে পুটিখালী ইউপি চেয়ারম্যানকে অপসারণ

বাগেরহাট প্রতিনিধি :
প্রকাশিত: ১৪:২২, নভেম্বর ২৮, ২০১৭ |সর্বশেষ আপডেট: ১৪:২২, নভেম্বর ২৮, ২০১৭
edia_image jwMediaContent aligncenter”>বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের পুটিখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহচাঁন মিয়া শামীমকে অপসারণ করা হয়েছে। ভিজিএফ ও মৎস্যজীবীদের চাল বিতরণে অনিয়ম, ওয়ারিস কায়েম সনদ, ট্রেড লাইসেন্সসহ বিভিন্ন সেবা প্রদানে আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে এ আদেশ দেওয়া হয়।স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ওই চিঠি বাগেরহাট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন-২০০৯ এর ৩৯ ধারা অনুযায়ী উপজেলা নির্বাচন অফিসার কর্তৃক বিশেষ সভা করে গোপন ব্যালটের মাধ্যমে অনাস্থা প্রস্তাবের পক্ষে ও বিপক্ষে ভোট গ্রহণ করা হয়। ভোটে অনাস্থা প্রস্তাবের পক্ষে ১১টি ভোট পড়ে, যা দুই তৃতীয়াংশের বেশি। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে শাহচাঁন মিয়া শামীমের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন-২০০৯ এর ৩৯ (১৩) ধারা অনুযায়ী তাকে স্থায়ীভাবে অপসারণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন-২০০৯ এর ৩৫ (২) ধারা অনুযায়ী মোরেলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুটিখালী ইউনিয়ন পরিদের চেয়ারম্যানের পদ শূন্য ঘোষণা করে গেজেট বিজ্ঞপ্তি জারির নির্দেশ দেয় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে মোরেলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান মিন্টু বলেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ অনুযায়ী পুটিখালী ইউপি চেয়ারম্যানের পদ শুন্য ঘোষণা করে গেজেট বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পুটিখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহচাঁন মিয়া শামীম এই প্রতিবেদককে জানান, উচ্চ আদালতে স্থানীয় সরকার বিভাগের ওই আদেশের বিরুদ্ধে আবেদন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে আদালত ওই চিঠির আদেশের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়েছেন। তবে তার কপি এখনও এসে পৌঁছায়নি।

উল্লেখ্য, ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে চেয়ারম্যান শাহচাঁন মিয়া শামীমের অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিভিন্ন দফতরে অভিযোগ দিয়ে আসছিলেন। সর্বশেষ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একটি অনাস্থা ভোটের আয়োজন করেন। সে ভোটে ১২ জন সদস্যদের মধ্যে ১১ জন সদস্য শামীমের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব দেয়।