ডুমুরিয়ায় এতিমখানায় শিশুকে পিটিয়ে জখম,শিক্ষক আটক

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি >
খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার ভান্ডারপাড়া এতিমখানায় আব্দুল্লাহ (১০) নামের এক শিশু ছাত্রকে পিটিয়ে জখম করেছে শিক্ষক। পুলিশ শিক্ষক শাহাদাৎ হোসেনকে আটক করেছে। আহত শিশুটি ডুমুরিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার ভান্ডারপাড়া দারুন উলুম মাদ্রাসা ও এতিমখানায় এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী ছাত্র রফিকুল ইসলাম ও শরিফুল ইসলাম জানান, আহত ছাত্র আব্দুল্লাহ পাইকগাছা থানার বেতবুনিয়া এলাকার আসলাম গাজীর ছেলে। সে প্রায় দুই বছর এতিম খানায় থেকে হাফেজি শিক্ষা নিচ্ছে। মাদ্রাসা সূত্রে জানা যায়,তুচ্ছ ঘটনায় মাদ্রাসার শিক্ষক শাহাদাৎ হোসেন (২৫) ওই শিশুটিকে নাকে মুখে বেপরোয়াভাবে চড় থাপ্পড় মারতে থাকে। একপর্যায়ে শিশুটি রক্তাক্ত জখম হয়ে অচেতন হয়ে পড়ে। এ সময় ছাত্র শরিফুল ইসলাম ঠেকাতে গেলে তাকেও মারপিট করা হয়। পরে অন্যান্য শিক্ষক ও ছাত্রদের সহায়তায় শিশুটিকে হাসপাতলে ভর্তি করা হয়।
এ প্রসঙ্গে মাদ্রাসার সভাপতি ও স্থানীয় ইউপি সদস্য মাহাবুর রহমান শেখ বলেন, হুজুরদের মধ্যে বিরোধ থাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় শিশুটির প্রতিবেশী চাচা শরিফুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছেন। থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাবিল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় শিশু আইনে থানায় মামলা রেকর্ড হয়েছে, তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।