বাঘারপাড়ায় বিএনপির ৫২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ইঞ্জিনিয়ার টিএস আইয়ুবসহ ৫২ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে বাঘারপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক শাহ আলম মামলাটি দায়ের করেছেন। মামলায় আরও ২০/৩০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়,  বাঘারপাড়া চৌরাস্থা সংলগ্ন উপজেলার ১নং গেটে টিএস আইয়ুবের নেতৃত্বে  বিএনপির কিছু নেতা-কর্মী লাঠিসোঁটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে নাশকতা ও অন্তর্ঘাতমূলক কর্মকাণ্ড করার জন্য মহড়া দিয়ে লোকজনের মাঝে আতংক সৃষ্টি করছিল। এসময় কয়েকটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় তারা। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গেলে আসামিরা পালিয়ে যায়। আসামিরা সরকারকে উৎখাত করার জন্য ষড়যন্ত্র, নাশকতা, অন্তর্ঘাতমূলক ও ক্ষতিকর কর্মকাণ্ড সৃষ্টি করে রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা করছিল।

বাঘারপাড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মঞ্জুরুল আলম জানান, বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আসামিদের আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

জানতে চাইলে বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ইঞ্জিনিয়ার টিএস আইয়ুব বলেন, ’বিএনপির নেতা-কর্মীরা যাতে সংগঠিত হতে না পারে, সেজন্য  এ মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে রেখে পুলিশের এ মামলা দূরভিসন্ধিমূলক। এটা বর্তমান সরকারের চিরাচরিত স্বভাব।’