নড়াইলে দু’দিনব্যাপী ‘বিজয় সরকার মেলা’র উদ্বোধন

নড়াইল প্রতিনিধি :

নড়াইলে দু’দিনব্যাপী ‘বিজয় সরকার মেলা’র উদ্বোধন

চারণকবি বিজয় সরকারের ৩২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নড়াইলে দু’দিনব্যাপী ‘বিজয় সরকার মেলা’র উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক এমদাদুল হক চৌধুরী।

চারণকবি বিজয় সরকার ফাউন্ডেশনের আয়োজনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইয়ারুল ইসলাম, ড. গাজী রহমান, অধ্যক্ষ রওশন আলী, বিজয় সরকার ফাউন্ডেশনের যুগ্ম-আহ্বায়ক এসএম আকরাম শাহীদ চুন্নু প্রমুখ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চিত্রশিল্পী বলদেব অধিকারীর একক চিত্রপ্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়।

দুই দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে চিত্র প্রদর্শনী, বিজয়গীতি পরিবেশন, বিজয়গীতি প্রতিযোগিতা, কবিগানের আসর, কবির জীবন ও কর্মের উপর আলোচনা এবং বিজয় স্বর্ণপদক প্রদান।

কবিয়াল বিজয় সরকার ১৯০৩ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি নড়াইল সদর উপজেলার ডুমদি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা নবকৃষ্ণ অধিকারী ও মা হিমালয়া দেবী।

বিজয় সরকার নবমশ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করেছেন, মতান্তরে মেট্রিক পর্যন্ত। তার দুই স্ত্রী বীণাপানি ও প্রমোদা অধিকারীর কেউ বেঁচে নেই।

বিজয় একাধারে গীতিকার, সুরকার ও গায়ক ছিলেন। ১৮০০ বেশি গান লিখেছেন তিনি। বার্ধ্যকজনিত কারণে ১৯৮৫ সালের ৪ ডিসেম্বর ভারতে পরলোকগমন করেন কবিয়াল বিজয় সরকার।

সুরস্রষ্টা বিজয় সরকার তার জীবনদ্দশায় -যেমন আছে এই পৃথিবী / তেমনিই ঠিক রবে/ সুন্দর পৃথিবী ছেড়ে একদিন চলে যেতে হবে…। নবী নামের নৌকা গড়/ আল্লাহ নামের পাল খাটাও/ বিসমিল্লাহ বলিয়া মোমিন/ কূলের তরী খুলে দাও…। কিংবা আল্লাহ রসূল বল মোমিন/ আল্লাহ রসূল বল/ এবার দূরে ফেলে মায়ার বোঝা/ সোজা পথে চল…। পোষা পাখি উড়ে যাবে সজনী/ ওরে একদিন ভাবি নাই মনে/ সে আমারে ভুলবে কেমনে… এ রকম প্রায় ১ হাজার ৮ শত গান লিখেছেন এবং সুর করেছেন।