মর্মান্তিক

কাজী মৃদুল, কোটচাঁদপর, ঝিনাইদহ>
সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ফেরা মেয়েকে নিতে এসে লাশ হলেন পিতা।
ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল সন্ধ্যায় ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর রেল স্টেশনে।
কোটচাঁদপুর রেল স্টেশন মাস্টার গোলাম মোস্তফা ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর মহেশপুর উপজেলার জলুলি গ্রামের মোস্তফা (৩৮) নামের এক ব্যক্তি তার অসুস্থ মেয়ে ফাতেমা (১৬) কে নিজের ইঞ্জিন চালিত ভ্যানে নিতে এসেছিলেন কোটচাঁদপুর রেল স্টেশনে। মেয়ে ফাতেমা তার নানির সাথে খুলনা মেডিকেল থেকে চিকিৎসা নিয়ে ট্রেনে ফিরেছিল। সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটের দিকে সাগড়দাড়ী ট্রেনটি কোটচাঁদপুর স্টেশনে পৌঁছালে পিতা মোস্তফা মেয়ের সাথে থাকা ব্যাগ নামাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এ সময় মেয়ে ট্রেন থেকে নেমে পড়লেও ভিড়ে মোস্তফা মেয়েকে দেখতে না পেয়ে তার খোঁজে আবারও ট্রেনের কামরায় উঠতে যান। এসময় ট্রেন ছেড়ে দিলে মোস্তফা প্লাটফর্ম ও ট্রেনের মাঝের চিপায় পড়ে চাকায় কাটা পড়ে নিহত হন। খবর পেয়ে কোটচাঁদপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এবং রেল পুলিশকে খবর দেয়া হয়।