জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবসে শোভাযাত্রা

স্পন্দন ডেস্ক>
যশোরসহ বিভিন্ন স্থানে প্রথমবারের মত পালিত হলো তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘সবার জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট’।
বিস্তারিত প্রতিনিধিদের রিপোর্টে-

নিজস্ব প্রতিবেদক জানান, জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদফতরের সহযোগিতায় যশোরে মঙ্গলবার জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবসে কলেক্টরেট প্রাঙ্গণ থেকে বর্ণাঢ্য এক শোভাযাত্রা বের হয়। যশোর জিলা স্কুল, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কালেক্টরেট স্কুলের শতাধিক শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে এ শোভাযাত্রার নেতৃত্ব দেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় যশোরের উপপরিচালক মাজেদুর রহমান খান। বাদ্যের তালে তালে এ শোভাযাত্রা শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার কালেক্টরেট প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়।
শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শোভাযাত্রায় অংশ নেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কেএম মামুন উজ্জামানসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানান : সকালে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্ত্বর থেকে শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে জেলা তথ্য অফিসার আবু বকর সিদ্দিকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আছাদুজ্জামান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার তারেক আল মেহেদি, জেলা শিক্ষা অফিসার মোকছেদুল ইসলাম, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ডা.জাহিদ আহমেদ ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাম্মী ইসলাম।
মাগুরা প্রতিনিধি জানান, মাগুরায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শহরে র‌্যালি বের হয়। কালেক্টরেট চত্ত্বর থেকে র‌্যালি শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসেকর সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা প্রশাসক আতিকুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আজাদ জাহান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান, সহকারি পুলিশ সুপার(সার্কেল) কাজী আহসান হাবীব প্রমুখ।

মহম্মদপুর(মাগুরা) প্রতিনিধি জানান, মহম্মদপুরে সকালে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান এর সভাপতিত্বে সভায় অংশ নেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মাসুদুল আলম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আতিকুল ইসলাম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ার হোসেন, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা তাহেরা জেসমিন প্রমুখ।

দেবহাটা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি জানান, দেবহাটা উপজেলা প্রশাসন র‌্যালি ও আলোচনা সভা করে। র‌্যালিটি ইউএনওর নেতৃত্বে উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। পরে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাফিজ-আল আসাদ। সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নওয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মুজিবর রহমান, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা অধীর কুমার গাইন, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মঞ্জুরুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষক মদন মোহন পাল, প্রধান শিক্ষক অনুপ কুমার দাশ প্রমুখ।
অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি জানান, অভয়নগরে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম মাহমুদুর রহমান। এ সময় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফরিদা বেগম, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধ স ম মোশারফ হোসেন, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শেখ ফিরোজ হোসেন, উপজেলা প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম, পিআইও রিজিবুল ইসলাম, নওয়াপাড়া প্রেসক্লাবের অন্যতম সদস্য সাংবাদিক এস জেড মাসুদ তাজ, সহকারী অধ্যাপক হারুন অর রশিদ, শিক্ষক সমির কুমার দত্ত প্রমুখ।
কয়রা(খুলনা) প্রতিনিধি জানান, কয়রায় র‌্যালি শেষে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে আলোচনা সভা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল কুমার সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আ খ ম তমিজ উদ্দীন, উপজেলা কৃষি অফিসার এস এম মিজান মাহমুদ, পল্লী উন্নয়ন অফিসার বাহাউল ইসলাম, পল্লী দারিদ্র বিমোচন অফিসার ইদ্রিস আলী, অধ্যক্ষ অদ্রীস আদিত্য মন্ডল, ইউপি চেয়ারম্যান এস এম শফিকুল ইসলাম, আলহাজ্ব আমির আলী গাইন, আব্দুস সাত্তার পাড়, সাংবাদিক সদর উদ্দিন আহমেদ, শেখ মনিরুজ্জামান মনু প্রমুখ।
খুলনা প্রতিনিধি জানান, খুলনায় কর্মসূচির মধ্যে ছিল বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনা সভা ও কনসার্ট। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের সহযোগিতায় খুলনা জেলা ও বিভাগীয় প্রশাসন এসব অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। বিকেলে নগরীর শহীদ হাদিস পার্কে কনসার্ট ফর আইসিটি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে খুলনার ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ ফারুক হোসেন, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) নিশ্চিন্ত কুমার পোদ্দার, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) সুবাস চন্দ্র সাহা, খুলনা জেলা প্রশাসক মোঃ আমিন উল আহসান সহ সরকারি ও বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরে খুলনার স্থানীয় ও স্বনামধন্য শিল্পীদের পরিবেশনায় পটগান ও সংগীতানুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। এর আগে খুলনা জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গন থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে হাদিস পার্কে এসে শেষ হয়।
ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি জানান, ফুলতলা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মঙ্গলবার বেলা সকালে উপজেলা চত্ত্বরে এক র‌্যালি বের হয়। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাশরুবা ফেরদৌস, সহকারী কমিশনার (ভুমি) পিংকি সাহা, প্রকৌশলী শেখ শামসুল আলম, অধ্যক্ষ প্রফুল্ল চত্রবর্তী, সহকারী অধ্যপক মোঃ নেছার উদ্দিন, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা এস এম বদিউজ্জামান, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা চায়না রানী দত্ত, কাজল বৈরাগী প্রমুখ।
পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি জানান, পাইকগাছায় র‌্যালি, প্রামাণ্যচিত্র ও ভিডিও প্রদর্শন হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফকরুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডঃ স ম বাবর আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওঃ শেখ কামাল হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহানারা খাতুন, অধ্যক্ষ মিহির বরণ মন্ডল, মোঃ রবিউল ইসলাম, উপাধ্যক্ষ সরদার মোহাম্মদ আলী, ইউপি চেয়ারম্যান গাজী জুনায়েদুর রহমান, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা পবিত্র কুমার দাস, কৃষি অফিসার এএইচএম জাহাঙ্গীর আলম, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জয়নাল আবদীন, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান, সমবায় কর্মকর্তা মুকুন্দ বিশ্বাস, বন কর্মকর্তা প্রেমানন্দ রায়, সহকারী প্রোগ্রামার মৃদুল কান্তি দাশ। বক্তব্য রাখেন, পাইকগাছা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি আব্দুল আজিজ, যুগ্ম-সম্পাদক এন ইসলাম সাগর, প্রভাষক আদিত্ব বাছাড়, মুসফেকা হুমায়ূন কবির পিন্টু, ময়নুল ইসলাম, কুসুম কলি সরকার, মোমিন উদ্দীন, তারেক আহম্মেদ, আব্দুর রাজ্জাক বুলি, শিক্ষক এসএম আমিনুর রহমান লিটু, শিবপদ মন্ডল, শিক্ষার্থী সাদিয়া আক্তার তমা, অর্পিতা শীল, পম্পা সরদার, রাজিয়া সুলতানা তিথি, তামান্না সুলতানা, ফয়সাল, রমজান, শুভ, রাফি ও আফরোজা সুলতানা।

ফকিরহাট প্রতিনিধি জানান, বাগেরহাটের ফকিরহাটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা অডিটরিয়ামে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহানাজ পারভীন। এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহকারি কমিশনার (ভূমি) প্রিয়াংকা পাল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বেতাগা ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন দাশ, অফিসার ইনচার্জ আবু জাহিদ শেখ, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ শহীদুল ইসলাম, ডাঃ এহসানুল আলম, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ পুষ্পেন কুমার শিকদার, প্রভাষক শ্যামল কুমার সাহা, প্রভাষক সজল আহম্মেদ, শিক্ষার্থী আলিফ শিতিল, বিথি ঢালী, নাফিজ ফকির প্রমূখ। অনুষ্ঠান সঞ্চলনা করেন পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোঃ দিলদার হোসেন। এসময় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ রেজাউল করিম ফকির, কাজি মোঃ মহসিন, যুব উন্নয়ন অফিসার মোঃ আমজাদ হোসেন সরদার, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ জাহিদুর রহমান, পরিসংখ্যান অফিসার সরদার আমজাদ হোসেন, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ মমিনুল হক, সহকারি প্রোগ্রাম অফিসার শাহিনা আক্তার, প্রধান শিক্ষক নিখিল চন্দ্র দাশ, প্রদূৎ কুমার দাশ, মল্লিক আঃ সাত্তার, প্রজিৎ কুমার মজুমদার, বিমল কুমার ঘোষ, ফকির মনিরুজ্জামান সহ বিভিন্ন কর্মকর্তা জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।