যশোর জিলা স্কুলের ১৮০ বছর পূর্তিতে দু’দিন্যাপি পুনর্মিলনী উৎসব আজ শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক>
ঐতিহ্যবাহী যশোর জিলা স্কুলের ১৮০ বছর পূর্তি ও প্রাক্তন ছাত্র পুনর্মিলনী উৎসব বর্ণিল আয়োজনে উদযাপনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ২২ ও ২৩ ডিসেম্বর দু’দিনব্যাপি এই উৎসব উদযাপিত হবে। জিলা স্কুলের গোটা চত্বর ইতোমধ্যে বর্ণিল আলোকসজ্জায় সাজানো হয়েছে। প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা এখন ক্ষণ গুণছেন বর্ণাঢ্য আয়োজনের পর্দা উন্মোচনের।
যশোর জিলা স্কুল প্রাক্তন ছাত্র সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক এজেডএম সালেক জানান, ব্রিটিশ-ভারতের প্রাচীনতম বিদ্যাপীঠ ঐতিহ্যবাহী যশোর জিলা স্কুল প্রতিষ্ঠার ১৮০ বছর পূর্ণ হতে যাচ্ছে। এ উপলক্ষে আগামী ২২ ও ২৩ ডিসেম্বর প্রাক্তন ছাত্র সমিতি দু’দিনব্যাপি পুনর্মিলনী উৎসবের আয়োজন করেছে।
উদযাপন কর্মসূচির মধ্যে থাকছে শোভাযাত্রা, আলোচনা, স্মৃতিচারণ, শিক্ষক সম্মাননা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, গ্রান্ড কনর্সাট, ডিজে, ফায়ার ওয়ার্কাস, লেজার লাইট শো, আলোকসজ্জা, ওয়াটার ড্যান্স, ওয়াইফাই জোন, রক্তদানসহ আরো ব্যতিক্রমধর্মী নানা অনুষ্ঠান।
এরই মধ্যে মিলন উৎসবে যোগ দেয়ার জন্য প্রাক্তন ছাত্র বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, সাবেক উপাচার্য ড. এম শমসের আলী, সাবেক মন্ত্রী তরিকুল ইসলাম, সাবেক মন্ত্রী খালেদুর রহমান টিটো, সাবেক সচিব তসলিমুর রহমান, সাবেক সচিব মনিরুজ্জামান, অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল জামিল ডি আহসান, ব্রিগেডিয়ার শহীদ আহমেদ, গীতিকার রফিকুজ্জামান, ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এএম জাকারিয়া মিলন, বিটিসি’র সাবেক চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন, অভিনেতা আজিজুল হাকিম ও সালাউদ্দিন লাভলু, প্রাক্তন ফুটবলার কওসার আলী, জাতীয় দলের ক্রিকেটার তুষার ইমরানসহ দুই সহ¯্রাধিক প্রাক্তন ছাত্র নাম নিবন্ধন করেছেন।
এজেডএম সালেক আরও জানান, ‘নবীন প্রবীণ এক প্রাণ’ এই শ্লোগানে উজ্জীবিত হয়ে প্রথম ২০০৫ সালে প্রাক্তন ছাত্র পুনর্মিলনীর আয়োজন করা হয়। এরপর ২০১০ ও ২০১৪ সালে স্কুল প্রাঙ্গণে পুনর্মিলনী উৎসব উদযাপিত হয়েছে। এবার ১৮০ বছর পূর্তির এই উৎসবে দেশ-বিদেশের প্রায় দুই হাজার প্রাক্তন ছাত্র ছাড়াও তাদের পরিবার অংশ নিতে যাচ্ছেন।