চিরবিদায় রাজনীতিক শরীফ আব্দুর রাকিবের

নিজস্ব প্রতিবেদক>
হাজারো মানুষের শ্রদ্ধা, ভালোবাসায় চিরবিদায় নিলেন বর্ষীয়ান রাজনীতিক যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট শরীফ আব্দুর রাকিব। শুক্রবার বাদজুমা নামাজে জানাজা শেষে তাকে কারবালা কবরস্থানে দাফন করা হয়। এরআগে সকাল ১০টার দিকে শরীফ আব্দুর রাকিবের মরদেহ ঢাকা থেকে যশোর পৌঁছে। মরদেহ আসার খবরে শহরের ঘোপের বাসভবনে ছুটে যান ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য পীযূষ কান্তি ভট্টাচার্য, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম মনির, জাতীয় পার্টির নেতা অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম বাচ্চু, জাসদের কার্যকরী সভাপতি অ্যাডভোকেট রবিউল আলম, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, প্রয়াত অ্যাডভোকেট খান টিপু সুলতানের স্ত্রী ডা. জেসমিন আরা বেগম, কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আমির হোসেন, মণিরামপুর পৌরসভার মেয়র অধ্যক্ষ মাহমুদুল হাসান, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী আব্দুস শহীদ লাল, সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট দেবাশীষ দাস, বারের সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট এম এ গফুর, নবনির্বাচিত সেক্রেটারি শাহিনুর রহমান শাহিন, রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয় কৃষ্ণ মল্লিক প্রমুখ। পরে বেলা সোয়া ১২টায় রাকিবের মরদেহ আনা হয় জেলা আইনজীবী সমিতি কার্যালয় চত্বরে। সেখানে জেলা আইনজীবী সমিতিসহ আইনজীবীদের সংগঠনগুলো এবং রাইটস যশোরের পক্ষ থেকে মরহুমের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এরপর মরদেহ নেওয়া হয় জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে। সেখানে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে কফিনে শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ করা হয়।
দুপুরে যশোর কেন্দ্রীয় ঈদগাহে আনা হয় মরদেহ। বাদজুমা সেখানে অনুষ্ঠিত হয় নামাজে জানাজা। এতে বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম, সাবেক গণপরিষদ সদস্য মঈনুদ্দিন মিয়াজী, জাতীয় সংসদের সাবেক হুইপ অধ্যক্ষ শেখ আব্দুল ওহাব, যশোর ২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম, জেলা ও দায়রা জজ আমিনুল ইসলাম, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল, জেলা প্রশাসক মো. আশরাফ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, জেলা আইনজীবী সমিতির সদ্য নির্বাচিত সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহম্মদ ইসহক, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহিনুর রহমান শাহিন, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ গফুর, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুল হুদা, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, জাসদের (ইনু) কার্যকরী সভাপতি রবিউল আলম, জেলা আওয়ামী লীগের নেতা এম এ মজিদ, প্রবীণ রাজনীতিক অ্যাডভোকেট কাজী আব্দুস শহীদ লাল, ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য ইকবাল কবির জাহিদ, পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টুসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক-সাংস্কৃতিক-পেশাজীবী-যুব-ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীসহ বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ নেন। এছাড়া জানাজাস্থলে হাজির ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট পীযূষ কান্তি ভট্টাচার্য্য, সংসদ সদস্য স্বপন ভট্টাচার্য্য, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহিত কুমার নাথ, রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয়কৃষ্ণ মল্লিক প্রমুখ।
জানাজার আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন এমপি মনিরুল ইসলাম, মরহুমের ভগ্নিপতি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ লুৎফর রহমান বাচ্চু এবং ভাই শরীফ রবিউল ইসলাম রবি। জানাজা পড়ান ঘোপ সেন্ট্রাল রোড জামে মসজিদের ইমাম মুফতি আব্বাসউদ্দিন। জানাজা শেষে জানানো হয়, আগামী রোববার বাদআসর মরহুমের ঘোপের বাসভবনে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।পরে দাফনের উদ্দেশ্যে মরদেহ নেওয়া হয় কারবালা গোরস্থানে।
হৃদরোগে আক্রান্ত শরীফ আব্দুর রাকিব বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর অ্যাপোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। সেখান থেকে উত্তরায় মেয়ের বাসায় নেওয়া হয় মরদেহ। গভীর রাতে প্রথম দফা জানাজা শেষে মরদেহ নিয়ে যশোরের উদ্দেশ্যে রওনা হন স্বজনরা। এ সময় তাদের সঙ্গে ছিলেন জেলা যুবলীগ সভাপতি মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরী।
এদিকে তার মৃত্যুতে গভীর শোক জানেিয়ছেন, আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক আহমেদ কচি, বাবু সুখেন মজুমদার, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবু মোহিত কুমার নাথ, সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান মিন্টু ও সহ সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক আবু মুসা মধু, আওয়ামী লীগ নেতা কাজী সেলিম আহমেদ,ছাত্রলীগ নেতা সাইদ সর্দার, সরকারি এমএম কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবু তালেব মিয়া, জাগপার কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি নিজাম উদ্দিন অমিতসহ নেতৃবৃন্দ, বাংলাদেশ পরিবহন সংস্থা শ্রমিক সমিতির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা মিঠু প্রমুখ। অপরদিকে শোক জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের জেলা কমিটির নির্বাহী সদস্য ও কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহ সম্পাদক অ্যাড. এবিএম আহসানুল হক আহসান।