ডুমুরিয়ায় যুবলীগের পরিচিতি সভায় প্রতিমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ> নেতা হয়ে মানুষের সালাম প্রত্যাশা না করে সেবা করতে হবে

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি>
দীর্ঘ ১৪ বছর পর ডুমুরিয়া যুবলীগের নবগঠিত আহবায়ক কমিটির পরিচিতি সভা ও সংগঠনকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে করণীয় শীর্ষক আলোচনা সভা গতকাল সোমবার সকালে শহীদ জোবায়েদ আলী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আর প্রধানমন্ত্রীর গতিশীল সেই নেতৃত্বে যুবলীগ সাহসী ভুমিকা রাখছে। নবগঠিত যুবলীগের আহবায়ক প্রভাষক গোবিন্দ ঘোষের সভাপতিত্বে প্রতিমন্ত্রী বলেন, শুধু নেতা হয়ে মানুষের কাছে সালাম প্রত্যাশা না করে সাধারণ মানুষকে সেবা করতে হবে। জনগণের শাসক না হয়ে সেবক হতে হবে। তিনি বলেন, মাদকের সংশ্লিষ্টতা নয়, এর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। যুবলীগের কোন সদস্য মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নুরউদ্দিন আল মাসুদ। প্রধান বক্তা ছিলেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য প্রকৌশলী মৃনাল কান্তি জোদ্দার। যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক আশরাফুল আলম রাজু ও শেখ ইকবাল হোসেনের উপস্থাপনায় বক্তব্যদেন আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, জেলা পরিষদের সদস্য সরদার আবু সালেহ, শাহনেওয়াজ জোয়াদ্দার, আবু সাঈদ সরদার, খান আবু বক্কার, সরদার আব্দুল গণি, ইউপি চেয়ারম্যান বিমল কৃষ্ণ সানা, ইউপি চেয়ারম্যান সুরঞ্জিত বৈদ্য, ইউপি চেয়ারম্যান প্রতাপ রায়, প্রভাষক বিষ্ণুপদ মল্লিক, প্রভাষক জিএম ফারুক হোসেন, মোল্যা সোহেল রানা, সরোজ কান্তি রায়, মেহেদী হাসান বিপ্লব, শেখ আছাদুজ্জামান, মোল্যা জাহিদুল ইসলাম, প্রভাষক অমিত কুমার অপু, সরদার মাসুদ রানা, মাহাবুল আলম খালিদ, শেখ আছাদুজ্জামান, প্রভাষক ব্রজেন সরকার, রাজিউল বারি, বিকাশ মন্ডল, খান আবুল বাসার প্রমুখ। উল্লেখ্য, গত ১৬ নভেম্বর তারিখে ৯০ দিনের জন্য এ আহবায়ক কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়।