ডুমুরিয়ার বানিয়াখালী বাজারে অগ্নিকান্ডে ১২টি দোকান পুড়ে ছাই

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি >
ডুমুরিয়া উপজেলার বানিয়াখালী বাজারে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১২টি দোকান পুড়ে ছাই হয়েছে।
ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিক ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার শরাফপুর ইউনিয়নের বানিয়াখালী বাজারে সাপ্তাহিক হাটের দিন মঙ্গলবার বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে বাজারের ফেটি হাউস থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। অগ্নিকান্ডের কারণ কেউ বলতে পারেনি। ওই সময় বৈদ্যুতিক সংযোগও বন্ধ ছিলো। ক্ষতিগ্রস্থ চায়ের দোকনি বদিয়ার রহমান রাজু জানান, ‘রবিউলের তুলার দোকান থেকে এ আগুন ধরে। তখন রবিউল দোকানে ছিলেন না। আগুনে একে একে অপূর্ব শীলের অরণ্য এন্টারপ্রাইজ নামে ৩টি ফার্নিচারের দোকান, হুমায়ুন ফকিরের মেশিনারিজের দোকান, হুমায়ুন কবিরের বিসমিল্লাহ সেনেটারির দোকান, আব্দুল হাইয়ের ইলেকট্রোনি দোকান, উত্তম দাসের ইলেকট্রোনিক দোকান, হারুন বিশ্বাসের ইলেকট্রোনিক দোকান, জাকির হোসেনের ক্যান্টনমেন্ট স্টোর, শ্রমিক ইউনিয়ন অফিস ও সমিরন গোলদারের ফলের দোকান ভষ্মীভূত হয়। খবর পেয়ে উপজেলা ফায়ার সার্ভিসর স্থানীয় জনগণের সহায়তা নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। উপজেলা চেয়ারম্যান খান আলী মুনসুর খবর পাওয়ামাত্রই ঘটনাস্থলে যান। তিনি জানিয়েছেন অনুমান করা হচ্ছে বাজারে প্রায় ৪০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। এদিকে আগুন লাগার কারণ উদঘটনের জন্য ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির সদস্যরা হলেন, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা ও বাজারের ২জন ব্যবসায়ী। ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিকদেরকে উপজেলা পরিষদের তহবিল হতে আর্থিক সাহায্য দেয়ার জন্য আশ্বাস দিয়েছেন চেয়ারম্যান।
উপজেলা চেয়ারম্যান খান আলী মুনসুর ছাড়াও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আশেক হাসান, থানা অফিসার ইনচার্জ হাবিল হোসেন ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শেখ রবিউল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।