প্রধানমন্ত্রীর জনসভা হবে যশোর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে

নিজস্ব প্রতিবেদক>
আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যশোরে জনসভার ভেন্যু পরিবর্তন করা হয়েছে। শামস উল হুদা স্টেডিয়ামের পরিবর্তে কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে হবে এই জনসভা।  বুধবার জেলা প্রশাসকের সভা কক্ষে আইনশৃংখলা সংক্রান্ত এক বিশেষ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
৩১ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যশোর আসছেন। ওই দিন সকালে তিনি যশোরস্থ মতিউর ঘাঁটিতে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। দুপুরে যশোর ঈদগাহ ময়দানের জনসভায় ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে তার। ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের উপপরিচালক মাজেদুর রহমান খানের সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতিমন্ডলীর সদস্য অ্যাড.পীযুষ কান্তি ভট্রাচার্য্য, সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ, স্বপন ভট্রাচার্য্য, অ্যাড.মনিরুল ইসলাম, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, এসএসএফ এর কমান্ডার মাহাবুবসহ উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টুসহ জেলা প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন বলেছেন প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছায় জনসভার স্থান পরিবর্তন করা হয়েছে। তিনি বলেন গুরুত্বপূর্ণ এই সভা থেকে প্রধানমন্ত্রীর যাতায়াতের পথ নির্ধারণসহ নানা বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার বলেন সমাবেশ স্থলে যাতায়াতের সুবিধার্থে জনসভার স্থান পরিবর্তন করা হয়েছে। সংসদ সদস্য অ্যাড. মনিরুল ইসলাম মনির বলেন, স্টেডিয়ামের থেকে ঈদগাহ ময়দানে যাতায়াতের পথ প্রশস্থ। যে কোন পরিস্থিতিতে মুভ করা সহজ। এবিষয় গুলো বিবেচনায় নেয়া হয়েছে। এর আগে জনসভার স্থান নির্ধারণ করা হয়েছিল যশোর শামস উল হুদা স্টেডিয়াম। সেই অনুযায়ী এক সপ্তারও বেশি সময় ধরে প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছিল। বৈঠক সূত্র জানায় প্রধানমন্ত্রীর জনসভার জন্য নির্ধারিত স্থান স্টেডিয়ামকে উপযুক্ত হিসেবে বিবেচনা করেননি এসএসএফ কর্মকর্তারা। ফলে জনসভার স্থান বদল করে কেন্দ্রীয় ঈদগাহে নির্ধারণ করা হয়।