নানা নির্দেশনার মধ্যে এসএসসি-সমমানের পরীক্ষা

স্পন্দন নিউজ ডেস্ক : আগামীকাল বৃহস্পতিবার সারাদেশে অভিন্ন ও সৃজজনশীল প্রশ্নপত্রে একযোগে শুরু হচ্ছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। এ বছর মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২০ লাখ ৩১ হাজার ৮৯৯ জন। এর মধ্যে মোট ছাত্রের সংখ্যা ১০ লাখ ২৩ হাজার ২১২ জন এবং ছাত্রীর সংখ্যা ১০ লাখ ৮ হাজার ৮৯৯ জন।

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ের সম্মেলন কক্ষে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এ বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠানে সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে মন্ত্রণালয়ের। প্রশ্নপত্র ফাঁস ঠেকাতে নেয়া হয়েছে সব ধরনের ব্যবস্থা। বিগত সময়ে কেউ প্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িত থাকলে কোনো কোনো সময় আইনের ফাঁক দিয়ে পার পেত। এবার তা করতে দেয়া হবে না।

সাধারণ ৮ বোর্ডে (কারিগরি ও মাদ্রাস ছাড়া) ছাত্রীর সংখ্যা বৃদ্ধি প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এবারও ৮ বোর্ডে ছাত্রী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। এবার মোট ছাত্র পরীক্ষার্থীর চেয়ে ছাত্রী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বেশি ৪২ হাজার ৬৯০ জন। মাদ্রাসা বোর্ডেও মোট ছাত্র পরীক্ষার্থীর চেয়ে ২ হাজার ৪৫৬ জন ছাত্রী পরীক্ষার্থী বেশি।

তিনি বলেন, ২০১৭ সালের তুলনায় ২০১৮ সালে মোট পরীক্ষার্থী বৃদ্ধি পেয়েছে ২ লাখ ৪৫ হাজার ২৮৬ জন। এর মধ্যে ছাত্র বৃদ্ধি পেয়েছে ১ লাখ ১২ হাজার ৭১১ জন এবং ছাত্রী বৃদ্ধি পেয়েছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৫৭৫ জন।

মন্ত্রী বলেন, এ বছর মোট প্রতিষ্ঠান বৃদ্ধি পেয়েছে ২০৭টি। মোট কেন্দ্র বৃদ্ধি পেয়েছে ১৭৬টি। এবার মোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৩৪১২টি। নিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৭ লাখ ২৯ হাজার ৫৭৩ জন। অনিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২ লাখ ৮৯ হাজার ৭৪৬ জন।

বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষার্থী বেড়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এ বছর আমাদের নানা উদ্যোগের ফলে বিজ্ঞান বিভাগে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে ৮১ হাজার ৩৪০ জন। এ বছর বিদেশে ৮টি কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪৫৮ জন।

৩০ মিনিট আগে সিটে বসা বাধ্যতামূলক উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, প্রত্যেক পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার হলের সিটে অবশ্যই বসতে হবে। যদি কোনো শিক্ষার্থী ৩০ মিনিট আগে সিটে বসতে না পারে তাকে পরীক্ষায় অংশ নিতে দেয়া হবে না। এ ব্যাপারে যানজটসহ নানা প্রতিবন্ধকতার বিষয়টি পরীক্ষার্থীদের মাথায় রাখার জন্য আমরা আগে থেকেই বলে আসছি।

পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোন সম্পর্কে নুরুল ইসলাম নাহিদ জানান, কেন্দ্র সচিব ব্যতীত অন্য কেউ কেন্দ্রে মোবাইল নিয়ে যেতে পারবে না। কেন্দ্র সচিব নিতে পারবেন শুধু বাটন ফোন, যে ফোনে ছবি তোলা যায় না।
এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় বাংলা ২য় পত্র এবং ইংরেজি ১ম ও ২য় পত্র ছাড়া সকল বিষয়ে সৃজনশীল প্রশ্নে পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে।

মন্ত্রী জানান, নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে শারীরিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান ও খেলাধুলা এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়সমূহ এনসিটিবির নির্দেশনা অনুসারে ধারাবাহিক মূল্যায়নের মাধ্যমে প্রাপ্ত নম্বর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রকে সরবরাহ করবে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরের সাথে ধারাবাহিক মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বর অনলাইনে বোর্ডে পাঠাবে।