গৃহবধূকে হত্যারপর লাশ গাছে ঝুলানোর অভিযোগ

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি :

গৃহবধূকে হত্যারপর লাশ গাছে ঝুলানোর অভিযোগ

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলায় শ্বশুর বাড়ি থেকে আরজিনা খাতুন (৩৬) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার সকালে উপজেলার জুড়ানপুর গ্রাম থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত আরজিনা খাতুন হাসাদ আলীর স্ত্রী।

এ ঘটনায় মামলা দায়েরেরপর তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে প্রধান আসামি ওই গ্রহবধূর স্বামী হাসাদ আলী পলাতক রয়েছেন।

দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আকরাম হোসন  এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান,  এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদি হয়ে স্বামী, শ্বশুর-শাশুড়িসহ চার জনকে আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এর মধ্যে নিহতের শ্বশুর-শাশুড়িসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে প্রধান আসামি তার স্বামী পলাতক রয়েছেন।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, ১৮ বছর আগে হাসাদ আলীর সাথে বিয়ে হয় আরজিনা খাতুনের। বিয়ের পর থেকেই নানান কারণে আরজিনার উপর পাশবিক নির্যাতন করতে থাকে তার স্বামী। এমনকি হাসাদ আলী অন্য জনের সাথে দ্বিতীয় বিয়েও করে। এরই সূত্র ধরে তারা পারিবারিক কলহে জড়িয়ে পড়ে।

তাদের অভিযোগে শনিবার রাতে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গাছের সাথে মরদেহ ঝুলিয়ে রাখে তার স্বামী হাসাদ আলী।

পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে ঘটনাস্থালে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে ময়না তদন্তের জন্য লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।