শার্শায় নাশকতা মামলায় আটক বিএনপি-জামায়াতের ১১ নেতাকর্মীর রিমান্ড মঞ্জুর

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোরের শার্শার একটি নাশকতা ও বিস্ফোরক মামলায় আটক বিএনপি-জামায়াতের ১১ নেতা-কর্মীর একদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। সোমবার আসামিদের রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো.শাজাহান আলী এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আসামিরা হলো শার্শার দক্ষিণ বুরুজবাগান গ্রামের ওলিয়ার রহমানের ছেলে আল মামুন বাবুল, জামাল বক্সের ছেলে আনার, খাজুরা গ্রামের তবিবর রহমানের ছেলে মোক্তার আলী, অগ্রভুলোট গ্রামের মৃত মানিক মোড়লের ছেলে মনির হোসেন, মৃত ইমানুর রহমানের ছেলে হাফিজুর রহমান মুকুল, কাশিপুর গ্রামের মৃত মাহতাব বিশ্বাসের ছেলে রুহুল আমিন, আইয়ুব হোসেনের ছেলে সোহেল রানা, গোকর্ণ গ্রামের মৃত কাশেম সরদারের ছেলে শামসুর রহমান, নারিকেল বাড়িয়া গ্রামে মৃত আবুদল আজিজ মালীর ছেলে কামাল হোসেন, ত্রিমোহনী গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে সাইফুল আলম মিন্টু ও শ্যামলাগাছি গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে হারুন-অর-রশীদ।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, গত ৩১ জানুয়ারি রাতে শার্শা থানা পুলিশ গোপন সংবাদে জানতে পারে দক্ষিণ বুরুজবাগানের আল মামুনের বাড়ির পিছনে নাশকতার উদ্দ্যেশ্যে জড়ো হয়েছে। গভীর রাতে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছালে আল মামুনকে আটক ও তার হাতে থাকা ব্যাগ থেকে ১০টি পেট্রোল বোমা উদ্ধার করা হয়। এ সময় পালিয়ে যায় অনেকে। এ ব্যাপারে এসআই দিবাকর মালাকর বাদী হয়ে ১৯ জনের নাম উল্লেখসহ অপরিচিত ব্যক্তিদের আসামি করে শার্শা থানায় একটি মামলা করেন। পুলিশ পরে অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত থাকায় ওই ১০ জনকে আটক করে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই বাবুল আক্তার আটক ১১ জনের ৫ দিন করে রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। সোমবার আসামিদের রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে বিচারক প্রত্যেকের একদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।