কাজের মাঝে প্রসাব করতে যাওয়ায় কিষানকে মারপিট

ডুমুুিরয়া (খুলনা) প্রতিনিধি>ডুমুরিয়ায় কাজ ফেলে ঘন ঘন প্রসাব করতে যাওয়ার অপরাধে মদন মন্ডল (৪৫) নামের এক কিষানকে মারপিট করেছেন গৃহকর্তা। গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলার কালিকাপুর দত্তডাঙ্গা বিলে এ ঘটনা ঘটে। আহত মদন কেশবপুর উপজেলার পাজিয়া গ্রামের দূর্গা মন্ডলের ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শিরা জানায়, সোমবার ডুমুরিয়া হাট থেকে ২৪’শ ৫০ টাকায় ৪ জন সপ্তাহিক দিন মুজুরকে (কিষান) কালিকাপুর দত্তডাঙ্গা এলাকার তপন মন্ডল বোরো ধানের ক্ষেতে কাজের জন্য নিয়োগ দেন। শনিবার কাজের মাঝে কিষান মদন মন্ডল ঘন ঘন প্রসাব করতে যাওয়াতে ক্ষিপ্ত হয় গৃহকর্তা তপন। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটিও হয়। একপর্যায়ে মহাজন উত্তেজিত হয়ে দিন মুজুর মদনকে লাঠি দিয়ে বেপরোয়া মারপিট করে। এ সময়ে আহত মদনকে তার সহকর্মীরা উদ্ধার করে ডুমুরিয়া হাসপাতালে নিয়ে আসে। এ প্রসংগে ডুমুরিয়া হাসপাতালের চিকিৎসক মিলন কান্তি মন্ডল জানান, গুরুতর আহত মদনকে হাসপাতালে ভর্তি করতে বলা হয়েছে। কিন্তু তাকে ভর্তি না করে নিয়ে যায়। একটি সুত্র জানান, তপনের ছেলে তাপস এসে কিষানকে ভর্তি না করে দ্রুত হাসপাতাল থেকে নিয়ে গেছে। তাপসের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সকালে কিষানরা আমাদের বোরো ধানের ক্ষেতে কাজ করতে যায়। কিন্তু কিষান মদনকে বাবা কী কারণে মেরেছে তা জানি না। এখন সে মোটামুটি সুস্থ।