ভাষা শহীদদের বিনম্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছে বিভিন্ন সংগঠন

স্পন্দন নিউজ ডেস্ক :  ভাষা শহীদদের স্মরণ করে বিনম্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন দেশের বিভিন্ন সংগঠন, রাজনৈতিক দল ও সহযোগী সংগঠন, বিভিন্ন জোট, ছাত্র সংসদ, ইউনিয়ন, সংস্থা, ফোরাম, সংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দগণ।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২ টা ১ মিনিটে একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পর শুরু হয় এসব প্রতিষ্ঠানগুলোর শ্রদ্ধা জানানো।

প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি ১১টা ৫২ মিনিটে শহীদ মিনারে উপস্থিত হন, এর পর তাদের অভ্যার্থনা জানান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আক্তারুজ্জামান। এরপর ঠিক ১২ টায় মূলবেদিতে ওঠেন তারা। এরপর ১২ টা ১ মিনিটে প্রথমে রাষ্ট্রপতি ও পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এর পর জাতীয় সংসদের স্পিকার, তারপর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে থেকে আবারও পুস্পাস্তবক অর্পন করেন শেখ হাসিনা। এরপর জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ শ্রদ্ধা জানান।

এ সময় মন্ত্রিসভার সদস্যরা, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাগণ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, তিন বাহিনীর প্রধানগণ, কূটনীতিকবর্গ এবং উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এর পর একে একে শ্রদ্ধা জানান, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনী, নৌবাহিনী, অ্যাটর্নি জেনারেল, মহান মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডারবৃন্দ।

বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যদের নিয়ে শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।
এরপর আওয়ামী লীগসহ ১৪ দলের নেতৃবৃন্দ শহীদ বেদিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।

এরপর শুরু হয় রাজনৈতিক অরাজনৈতিক সংগঠন, দল, রাজনৈতিক দলের সহযোগী-সহকারি সংগঠন, বিভিন্ন জোট, ছাত্র সংসদ, ইউনিয়ন, সংস্থা ও ফোরামের পক্ষ থেকে তাদের নেতৃবৃন্দ শদ্ধা জানাচ্ছেন। রাত ১২ টার পর রাত ৩ টা পর্যন্ত হাজারো মানুষের ঢল নামে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায়।

সিপিবি, বাসদ, কৃষক-শ্রমিক জনতা পার্টি, ছাত্রলীগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভিন্ন হল, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন, ছাত্র সংসদ, নটরডেম কলেজ, বিপ্লবি ছাত্রমৈত্রী, ছাত্র ঐক্য ফোরাম, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন, জাগপা, গারো স্টুডেন্ট ফেডারেশন, পার্বত্য চট্টগ্রাম।

আদিবাসী ফোরাম, বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, বিকল্প ধারা বাংলাদেশ, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ যুব মৈত্রী, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ, অপুর্ব ড্যান্স স্কুল, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন, গণজাগরণ মঞ্চ, বাংলাদেশ-জার্মান সম্প্রীতি, জাতীয় পার্টি-জেপি, বাংলাদেশ তাঁতী লিগ, বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন, প্রগতিশীল জাতীয়তাবাদী দল, বাংলাদেশ খ্রিষ্টান লীগ, জাতীয় যুব সংহতি, জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক জোট, বাংলাদেশ আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরাম, ঢাকা আইনজীবী সমিতি, শ্রমিক কর্মচারী লীগ, বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল, বর্ণচাষ সহ অনেক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান।