মাগুরায় কলেজে ঢুকে ছাত্রীকে রক্তাক্ত করল বহিরাগত বখাটে

মাগুরা প্রতিনিধি :

মাগুরায় কলেজে ঢুকে ছাত্রীকে রক্তাক্ত করল বহিরাগত বখাটে

মাগুরায় সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ ক্যাম্পাসে ঢুকে প্রথম বর্ষের এক ছাত্রীকে উপর্যুপরি কিলঘুষিতে রক্তাক্ত জখম করেছে প্রান্ত নামে এক বখাটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বখাটের হামলার শিকার মেয়েটির বাবা এনামুল ইসলাম শিমুল জানান, শহরের পারনান্দুয়ালি-পূর্বাশা খেয়াঘাটের দোকানদার রুহল বিশ্বাসের ছেলে প্রান্ত (২২) দীর্ঘদিন ধরেই তার মেয়েকে খেয়া পারাপারের সময় উত্ত্যক্ত করে আসছে। বিষয়টি তার পরিবারকে একাধিকবার জানানো হয়েছে। কিন্তু সে তার অপকর্ম ঠিকই অব্যাহত রেখেছে।

এদিকে, সোমবার বেলা ১২টার দিকে ক্লাস শেষ করে অন্য সহপাঠিদের নিয়ে মেয়েটি বের হয়। কিন্তু সেখানে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা ওই লম্পট তার পথ আগলে দাঁড়ায়। সে হাত ধরে তাকে ক্যাম্পাসের বাইরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় বাধা দিলে প্রান্ত তার মুখ ও শরীরে উপর্যুপরি কিলঘুষি মারতে থাকে। এতে কান থেকে রক্ত গড়িয়ে পড়ে। এ সময় সহপাঠিরা ধাওয়া দিলে সে পালিয়ে যায়। পরে কলেজ কর্তৃপক্ষ তাকে মাগুরা ২৫০ শয্যার সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে।

মাগুরা ২৫০ শয্যার সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মশিউর রহমান বলেন, মেয়েটির মুখ ও কান ফুলে গেছে। তবে কানের ভিতরে কতটা ক্ষতি হয়েছে সেটি পরবর্তী পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানা যাবে।

কলেজ অধ্যক্ষ দেবব্রত বিশ্বাস জানান, বিষয়টি সদর থানা পুলিশকে অবগত করা হয়েছে। একই সাথে বহিরাগতদের কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশের সুযোগ বন্ধে সহায়তা চাওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসেন জানান, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।