হারের পর আবেগঘন বার্তা নেইমারের

ক্রীড়া ডেস্ক> বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে বেলজিয়ামের কাছে ব্রাজিল হেরে যাওয়ায় এতো বেশি আঘাত পেয়েছিলেন যে, দলের প্রধান তারকা নেইমার তখন কথা পর্যন্ত বলেননি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে। তাই তিনি কী প্রতিক্রিয়া দেন সে দিকেই বেলজিয়ামের বিপক্ষে হারের পর হতাশ নেইমার-ছবি: সংগৃহীততাকিয়েছিল ক্রীড়া সংবাদমাধ্যম।

অবশেষে একদিন পর ওই ম্যাচ নিয়ে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে আবেগঘন বার্তা দিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান পোস্টারবয়। এই হারকে ‘ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বেদনাঘন মুহূর্ত’ হিসেবে অভিহিত করেছেন ‘নাম্বার টেন’।

নেইমার তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শনিবার (৭ জুলাই) রাতে এক পোস্টে লেখেন, ‘এটাই আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বেদনার মুহূর্ত। এটা অস্বাভাবিক যন্ত্রণার। আমরা জানতাম আমরা সেখানে (বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে) যেতে পারবো। আমরা জানতাম আমাদের আরও সামনে যাওয়ার, ইতিহাস গড়ার প্রেক্ষাপট ছিল।’

‘কিন্তু এটা সেই সময় নয়। আবারও ফুটবল খেলার শক্তি সঞ্চয় করা কঠিন, কিন্তু আমি নিশ্চিত ঈশ্বর আমাকে যে কোনো কিছুর মুখোমুখি হওয়ার শক্তি দান করবেন। তাই আমি ঈশ্বরকে ধন্যবাদ দিতেই থাকবো, এমনকি পরাজয় সত্ত্বেও… কারণ আমি জানি ঈশ্বরের চিন্তা আমার চেয়ে অনেক বেশি উন্নত।’

ব্রাজিল দলের হয়ে খেলতে পেরে গর্বিত নেইমার লেখেন, ‘আমি এই দলের সদস্য হতে পেরে গর্বিত। আমি সবকিছু নিয়েই গর্বিত, আমাদের স্বপ্ন ভেঙে গেছে, কিন্তু আমাদের মাথা থেকে এটা বের হয়নি এবং আমাদের হৃদয় থেকেও না।’

রাশিয়া বিশ্বকাপে দলের মোট পাঁচ ম্যাচে দুই গোল করে এবং এক অ্যাসিস্ট করে নিজের সামর্থ্যের জানান দেন নেইমার। কিন্তু ম্যাচের পারফরম্যান্সের চেয়ে মাঠে ফাউলের শিকার হয়ে তার ‘প্রতিক্রিয়া’ই বেশি আলোচনায় রাখে ২৬ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডকে।

ব্রাজিল দলটি সাম্প্রতিককালের সেরা দল ও ফর্ম নিয়েও কোয়ার্টার ফাইনালের বৈতরণী পেরোতে ব্যর্থ হয়েছে। ফলে নেইমারদের আরও চার বছর অপেক্ষায় থাকতে হবে ‘হেক্সা মিশন’ পূরণ করতে।