ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত মেধাবী ছাত্রী শারমিনকে বাঁচাতে সাহায্য প্রয়োজন

নিজস্ব প্রতিবেদক>
ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত এসএসসিতে জিপিএ-৫ পাওয়া মেধাবী ছাত্রী আজরিনা শারমিনকে বাঁচাতে সকলের সাহায্য প্রয়োজন। গরিব এই মেধাবী ছাত্রী যশোর সরকারি এমএম কলেজের মানবিক শাখার এইচএসসি পরীক্ষার্থী। সে শহরের লালদীঘির পাড় এলাকার ৩২ বছরের ভাড়াটিয়া বাসিন্দা চা বিক্রেতা ফিরোজ আহমেদের মেয়ে। ২০১৫ সাল থেকে মেয়ের চিকিৎসার খরচ যোগাতে নি:স্ব হয়ে আজ বিত্তবানসহ সমাজের সব শ্রেনী পেশার মানুষের কাছে সাহায্য কামনা করছেন ফিরোজ আহমেদ।
পারিবারিক সূত্র জানায়, যশোর ও ঢাকার কয়েকটি হাসপাতালে শারমিনের রোগ সনাক্ত করতেই চলে গেছে অনেক টাকা। ২০১৮ সালে ভারতে গিয়ে তার ব্রেন টিউমার ধরা পড়ে। ভারতের চিকিৎসকরা বলেছেন, মাথায় দ্রুত অস্ত্রোপচার করলে সে ভাল হয়ে যাবে। তবে এতে খরচ পড়বে ৯ লাখ টাকা। একথা শোনার পর যেন মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার মতো অবস্থা হয় ফিরোজের। সামান্য চা বিক্রেতা হয়ে এত টাকা কিভাবে যোগাড় করবেন তিনি। এখন মেয়ের দ্রুত অস্ত্রোপচার করতে টাকা যোগাড়ের জন্য ছুটছেন। কিন্তু কোন কুল কিনারা করতে পারছেন না। তাই সমাজের দানশীল ব্যক্তিসহ সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানানো হয়েছে। যাতে সবার দেয়া টাকায় মেধাবী ছাত্রী শারমিনের জীবন বাঁচতে পারে। শারমিনের চিকিৎসায় সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা- মো ফিরোজ আহমেদ, সঞ্চয়ী হিসাব নম্বর ৩৪১৭৮৩১১, সোনালী ব্যাংক যশোর কর্পোরেট শাখা। বিকাশ নম্বর ০১৭২৫৩১৭০১৯। এই নাম্বারে তার সাথে যোগাযোগও করা যাবে।