কিস্তিতে ট্রাক নিয়ে যন্ত্রাংশ খুলে বিক্রি, মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক>
নিটল মটরস এর যশোর ডিপো থেকে কিস্তিতে একটি ট্রাক নিয়ে টাকা পরিশোধ না করে তার যন্ত্রাংশ খুলে বিক্রির অভিযোগে কোতয়ালি থানায় একটি মামলা হয়েছে। নিটল মটরসের আইন কর্মকর্তা শামস ইমরান বাদি হয়ে মামলটি করেন।
আসামি করা হয়েছে দুইজনকে। এরা হলেন, শহরের রেলরেডস্থ এমএসটিপি স্কুলের সামনের মৃত আব্দুল মান্নান সরদারের ছেলে সরদার লিয়াকত হাসান এবং মুড়লী মোড়ের কালু ওরফে কালু মিস্ত্রি।
এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, আসামি সরদার লিয়াকত হাসান ২০১৭ সালের ২১ অক্টোবর একটি চুক্তিপত্র সম্পাদন করে একটি (ঢাকা মেট্টো-ট-২০-৯১৮২) ট্রাকের চেসিস কেনেন কিস্তিতে। ওই ট্রাকের মূল্য দাঁড়ায় ৪৩ লাখ ৪১ হাজার ৬শ’ টাকা। চুক্তি মোতাবেক ওই বছরের ১৩ ডিসেম্বর প্রথম কিস্তির টাকা দেয়ার কথা থাকলেও ২০১৮ সালের ২৯ মে কিস্তি বাবদ ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা দেন লিয়াকত হাসান। এরপর আর কোন টাকা দেননি। ট্রাকটি ২ নম্বর আসামি কালুর গ্যারেজে রাখা হয়। আজ কাল বলে দিনের পর দিন ঘুরাতে থাকেন লিয়াকত হাসান। কোম্পানির নোটিশের কোন গুরুত্ব না দিয়ে আসামি কালুর যোগসাজসে গ্যারেজে রাখা ট্রাক থেকে মূল্যবান যন্ত্রপাতি খুলে নিয়ে বিক্রি করে দেয়া হয়। সংবাদ পেয়ে কোস্পানির লোকজন গ্যারেজে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পান। কিন্তু কালু অস্বীকার করে। পরে আসামি লিয়াকত হাসানকে ট্রাকের টাকা পরিশোধ করতে বললে তিনি অস্বীকার করেন। ট্রাকটিও তিনি ফিরিয়ে দেননি। প্রতারণা করে ট্রাকটি নিয়ে তা আত্মসাৎ করেছেন ওই দুই আসামি।