জিতল বিলবাও, হাসল বার্সেলোনা

জিতল বিলবাও, হাসল বার্সেলোনা

কখনো কখনো মাঠে না নেমেও জয় আনন্দের তৃপ্তি মেলে। পরের জয়কে মনে হয় নিজেদের জয়! গতকাল রাতে বার্সেলোনার অনুভূতিটা ছিল ঠিক তেমনই। মাঠে না নেমেও পেয়েছে জয় আনন্দের সুখ। অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের জয়কে নিজেদেরই জয় মনে হয়েছে মেসিদের! কাল রাতে অ্যাথলেটিক বিলবাও যে ২-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে বার্সেলোনার শিরোপা প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদকে।

রিয়াল মাদ্রিদ লিগ শিরোপা দৌড় থেকে আগেই ছিটকে পড়েছে। ফলে শিরোপার প্রশ্নে বার্সেলোনার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী এখন অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। কিন্তু কাল এই অ্যাতলেতিকো হারিয়ে বার্সেলোনার শিরোপার রাস্তাটা আরও প্রশস্ত করে দিলো বিলবাও। নিজেদের মাঠে বিলবাওয়ের কালকের জয়টি তাই বার্সেলোনাও! বরং বিলবাওয়ের চেয়েও বেশি সুখ পেয়েছেন মেসি-সুয়ারেজরা!

তবে এই আনন্দটা ধরে রাখতে হলে মেসিদের আজ নিজেদেরই জয় পতাকা উড়াতে হবে। জিততে হবে রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে। পরের কারণে পাওয়া আনন্দটা ধরে রাখতে মেসিরা নিশ্চয় সর্বাত্মক চেষ্টাই করবেন।

এই তো গত মঙ্গলবার ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর কাছে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা স্বপ্ন গুঁড়িয়ে গেছে অ্যাতলেতিকোর। ৩-০ গোলের ওই হারের পর থেকেই কোচ দিয়েগো সিমিওনের সমালোচনায় মুখর অ্যাতলেতিকোর সমর্থকেরা। সেই হতাশা হালকা না হওয়ার আগেই কাল আবার লিগের এই ধাক্কা। এই হারের মধ্য দিয়ে অ্যাতলেতিকোর লিগ শিরোপা স্বপ্নও কার্যত শেষ হয়ে গেল।

কারণ দ্বিতীয় স্থানে থাকা অ্যাতলেতিকোর পয়েন্ট এখন ২৮ ম্যাচে ৫৬। এক ম্যাচ কম খেলেই বার্সেলোনার পয়েন্ট ৬৩। মানে বার্সা ৭ পয়েন্টে এগিয়ে। বার্সা আজ জিততে পারলে ব্যবধানটা হয়ে যাবে ১০। সেক্ষেত্রে অ্যাতলেতিকোর শিরোপা স্বপ্ন মূলত শেষই হয়ে যাবে।

কালকের হারে অ্যাতলেতিকোর আর্জেন্টাইন কোচ সিমিওনে যে আরও বেশি চাপের মুখে সেটি না বললেও চলছে। সমর্থকদের টানা ব্যর্থতার এই ক্ষোভটা শেষ পর্যন্ত সিমিওনেকে ছাঁটাইয়ের দাবিতে রূপ নেয় কি না, সেই শঙ্কাও জাগছে।