ক্রাইস্টচার্চ হামলা : ২২ মার্চ বৈঠকে বসবে ওআইসি

ক্রাইস্টচার্চ হামলা: ২২ মার্চ বৈঠকে বসবে ওআইসি

নিউজ্যিলান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে মুসল্লিদের ওপর সম্প্রতি যে ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে তা নিয়ে আলোচনা করতে আগামী ২২ মার্চ বৈঠকে বসবে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা বা ওআইসি।

সংস্থাভুক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরে এ বৈঠকে মিলিত হবেন।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি রোববার এ কথা জানিয়েছন বলে খবর দিয়েছ ইরানের পার্সটুডে।

খবরে বলা হয়েছে, গতকাল রোববার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, ‘ঐক্যবদ্ধভাবে ইসলামভীতি ছড়ানোর রাশ টেনে ধরার কৌশল নিয়ে আসন্ন বৈঠকে আলোচনা করা হবে।’

তিনি জানান, তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রী মেভলুত চ্যাভুসোগ্লুর সঙ্গে আলাপের পর ওআইসির বৈঠকের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রী আরো বলেন, নিউজিল্যান্ডের ঘটনাসহ অস্ট্রেলিয়ার সিনেটরের বিদ্বেষী বক্তব্য ও লন্ডনের ঘটনায় বিক্ষিপ্তভাবে নানা ধরনের বক্তব্য দেয়া হচ্ছে। কিন্তু যদি পুরো ওআইসি এবং মুসলিম উম্মাহ এক সুরে কথা বলে তাহলে তার গুরুত্ব অনেক বেশি হবে।

কোরেশি বলেন, সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ড নিয়ে তিনি নিউজিল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন এবং সন্ত্রাসবাদরে কোনো ধর্ম ও সীমানা নেই বলে উল্লেখ করেছেন। সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, নিউজিল্যান্ডের হত্যাকাণ্ডে পাকিস্তানের নয় নাগরিক নিহত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (১৫ মার্চ) নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে আল নুর ও লিনউডের একটি মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে আল নুর মসজিদে স্বয়ংক্রিয় মেশিনগান দিয়ে ব্যাপক নৃশংসতা চালায় অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ২৮ বছর বয়সী উগ্রবাদী সন্ত্রাসী ব্রেনটন টারান্ট।

শুধু তাই নয়, ১৭ মিনিটের ওই হত্যাযজ্ঞের ঘটনা সরাসরি অনলাইনে প্রচারও করে সে। ধারণা করা হচ্ছে, লিনউডের মসজিদেও সে হামলা চালিয়েছে। উভয় ঘটনায় অন্তত ৫০ জন মুসল্লি নিহত এবং অন্তত ৬০ জন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে টারান্টের বিরুদ্ধে একটি খুনের মামলা হয়েছে। তবে তার বিরুদ্ধে আরো একাধিক মামলা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।