মাথাপিছু আয় হবে ১ হাজার ৯০৯ ডলার

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদে (এনইসি) এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, অর্থবছরের প্রথম আট মাসের (জুলাই-ফেব্রুয়ারি) তথ্য বিশ্লেষণ করে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো যে হিসাব করেছে, তাতে ২০১৮-১৯ অর্থবছর শেষে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে রেকর্ড ৮ দশমিক ১৩ শতাংশ। আর মাথাপিছু আয় হবে প্রায় ১ হাজার ৯০৯ ডলার।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর প্রাক্কলন অনুযায়ী চলতি অর্থবছর শেষে বাংলাদেশের মোট জিডিপির আকার দাঁড়াবে প্রায় ২৫ লাখ ৩৬ হাজার ১৭৭ কোটি টাকায়। গত অর্থবছরে জিডিপির আকার ছিল ২২ লাখ ৫০ হাজার ৪৭৯ কোটি টাকা।

তিনি বলেন, পরিসংখ্যান ব্যুরো প্রাক্কলিত যে হিসাব দিয়েছে, তাতে চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরে শিল্প খাতে প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছে ১৭.৬১ শতাংশ। গত অর্থবছরের এ খাতে প্রবৃদ্ধি ছিল প্রায় ১৭.১৩ শতাংশ। এছাড়া কৃষি খাতে ৯.১৩ শতাংশ এবং সেবা খাতে ১২.১০ শতাংশ প্রবৃদ্ধির প্রাক্কলন করা হয়েছে এবার, যা গতবার যথাক্রমে ১১.০২ শতাংশ ও ১২.৮০ শতাংশ ছিল।

আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, চলতি অর্থবছরে ৩১.৫৭ শতাংশ বিনিয়োগে আসছে বলে ধরা হয়েছে। গত অর্থবছর এই হার ছিল ৩১.১৩ শতাংশ। এবারের বিনিয়োগের মধ্যে সরকারি খাতের অবদান ৮.১৭ শতাংশ। আর বেসরকারি খাত থেকে ২৩.৪০ শতাংশ আসবে।