যশোরে দোল উৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক>
”খেলবো হোলি রং দেবনা তাই বলে কি হয়,এসো এসো বাইরে এসো ভয় পেয়োনা ভয়” রং মেখে আর রং মাখিয়ে শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর জন্মতিথি ও দোল পূর্ণিমায় যশোরে নানা আয়োজনে দোল উৎসব উদযাপন হয়েছে। গৌর পূর্ণিমা তিথিতে সনাতন ধর্মীয় নানা আচার অনুষ্ঠান শেষে এমএম কলেজে আলোচনাসভা ও মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। সনাতন বিদ্যার্থী সংসদ যশোর এমএম কলেজ শাখা সকালে এই আলোচনা সভা, মঙ্গল শোভাযাত্রা ও আবির খেলার আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবু তালেব মিয়া।
বিশেষ অতিথি ছিলেন অবসরপ্রাপ্ত প্রফেসর শৈলেশ কুমার রায়, সরকারি এমএম কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর সুধীর রঞ্জন নাথ ও সরকারি সিটি কলেজের সহকারী শিক্ষক অলোক বসু। বিশেষ আলোচক ছিলেন সনাতন বিদ্যার্থী সংসদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাবেক সভাপতি মাণিক রক্ষিত। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সাংস্কৃতিক ও সামাজিক ব্যক্তিত্ব হারুণ অর রশীদ ও যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি প্রণব দাস। সভাপতিত্ব করেন সনাতন বিদ্যার্থী সংসদ এমএম কলেজ যশোর শাখার সভাপতি অভিজিৎ চক্রবর্তী। সঞ্চলনা করেন এমএম কলেজ যশোর শাখার সাধারণ সম্পাদক সত্যজিৎ মজুমদার।
আলোচনা শেষে মঙ্গল শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন সরকারি এমএম কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবু তালেব মিয়া। শোভাযাত্রাটি কলেজ ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে রঙের উৎসবে মেতে ওঠে সর্বস্তরের ছাত্র-ছাত্রীরা। সনাতন বিদ্যার্থী সংসদসহ সাধারণ শিক্ষার্থী ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে রঙয়ের ছটায় নিজের ভেতরের সকল কালোকে দূর করতে সামিল হয় দোল উৎসবে। এছাড়া, যশোর রামকৃষ্ণ আশ্রম ও মিশন, সিদ্ধেশ্বরী কালী মন্দির, বেজপাড়া পূজা সমিতি মন্দির, পশ্চিমবারান্দী নাথপাড়া সার্বজনীন মন্দিরসহ পাড়া মহল্লায় ও বাড়িতে বাড়িতে দোল উৎসব উদযাপিত হয়।