মাইক্রোসফট থেকে পদত্যাগ করলেন বাংলাদেশের সোনিয়া

মাইক্রোসফট থেকে পদত্যাগ করলেন বাংলাদেশের সোনিয়া

মাইক্রোসফট বাংলাদেশ, মিয়ানমার, নেপাল, ভূটান ও লাওসের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেছেন তথ্য-প্রযুক্তি খাতের জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব সোনিয়া বশির কবির।

মাইক্রোসফটের হয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তিনি আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত কাজ করবেন। পহেলা মে থেকে সোনিয়া বশির কবিরের পদত্যাগপত্র কার্যকর হবে।

জানা গেছে, আপাতত সোনিয়া বশির কবির অন্য কোনো আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন না। নিজের প্রতিষ্ঠান ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া অঞ্চলে ‘অ্যাঞ্জেল ইনভেস্টর’ হিসেবে বিনিয়োগ করা বিভিন্ন স্টার্টআপগুলোতেই বেশি সময় দেবেন তিনি।

ধারণা করা হচ্ছে, কোনো আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের সহায়তায় তিনি একটি নতুন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান চালু করবেন।

মাইক্রোসফটের সাথে এই শেষ সময়টিতে দায়িত্ব হস্তান্তর সংক্রান্ত কর্মকাণ্ডে আন্তর্জাতিক এই প্রতিষ্ঠানটিকে সহায়তা করবেন তিনি।

দেশের নারী ও তরুণ প্রজন্মের জন্য সোনিয়া বশির কবির একজন আদর্শ ব্যক্তিত্ব। ব্যবসায়িক খাতে সম্মানজনক একটি স্থানে থাকার পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপদেষ্টা পর্ষদের সঙ্গেও জড়িত।

মাইক্রোসফটে কাজ করার পাশাপাশি তিনি টেক হাবস-এর (প্রযুক্তির মাধ্যমে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীকে সক্ষম করার কাজে নিয়োজিত সংস্থা) প্রতিষ্ঠাতা; স্বল্পোন্নত দেশগুলোর জন্য প্রতিষ্ঠিত ইউনাইটেড ন্যাশনস টেকনোলজি ব্যাংকের গভর্নিং কাউন্সিল ভাইস চেয়ারম্যান ও বোর্ড মেম্বার; ইউনেস্কো মহাত্মা গান্ধী ইন্সটিটিউট অব এডুকেশন এন্ড পিস-এর বোর্ড মেম্বার; ফিনটেক স্টার্টআপ ডি মানি ও স্বাস্থ্য বিষয়ক স্টার্টআপ সিনটেক- এর ভাইস চেয়ারম্যান ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং ‘অ্যাঞ্জেল ইনভেস্টর’ হিসেবে বহু স্টার্টআপের সঙ্গে যুক্ত আছেন।