ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর , ২০২১ ● ১১ কার্তিক ১৪২৮

কালীগঞ্জে এক রাতে কৃষকের ৭ গরু চুরি

Published : Wednesday 13-October-2021 21:28:32 pm
এখন সময়: মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর , ২০২১ ২১:৪৮:০৬ pm

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : কৃষক গঞ্জের আলীর পালিত গরু ছিল একমাত্র সম্বল। সারাবছর পালন করে ১ টা ২ টা করে বিক্রি করেই চলত তার সংসার। মাঠে কোনো চাষযোগ্য জমি নেই। তাই স্বামী-স্ত্রী দু’জনই সন্তানের মত করে লালন করতেন গরুগুলোকে। কিন্তু মঙ্গলবার গভীর রাতে তার গোয়ালের ৯ গরুর মধ্যে ৭ গরুই চুরি হয়ে গেছে। বাকী রেখে গেছে ছোট দু’টি বাছুর। এখন শূন্য গোয়ালের সামনে দাঁড়িয়ে স্বামী স্ত্রী শুধুই চোখের পানি ফেলছেন। তাদের প্রায় ৬ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত আলীর স্ত্রী সিনু বেগম বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

কালীগঞ্জ পৌর এলাকার ফয়লা গ্রামে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক গঞ্জের আলী জানান, প্রতিদিনের মত রাতে গরু গুলোকে খেতে দিয়ে নিজেরা ঘুমিয়ে পড়ে। এরপর ভোর ৪ টার দিকে বাইরে বের হয়ে দেখেন শূন্য গোয়াল পড়ে আছে। বাড়ির মূলফটক আলগা করা। গরুগুলো চুরি হয়ে গেছে। সড়কের পাশে বাড়ি হওয়ায় স্বশস্ত্র অবস্থায় চোরেরা পিকআপে তুলে নিয়ে গেছে।

তিনি আরও জানান, ভোরের দিকে এক রিকসাওয়ালা রিকসা নিয়ে পাশের নরেন্দ্রপুর গ্রামে যাচ্ছিল। এ সময় চোরেরা তাকে ধরে গাছের সাথে রশি দিয়ে বেধে রাখে। সে যেন হৈ চৈ করতে না পারে সে জন্য তার মুখ কাপড় দিয়ে বেধে রেখে যায়। সকালে রিকসা চালক জানান, চোরেরা নিজেরা মুখোশ পড়ে বড় বড় ধারালো দা ও দেশি অস্ত্রপাতি নিয়ে পিকআপে তুলে গরুগুলো নিয়ে যায়।

প্রতিবেশি জিল্লুর রহমান জানান, চোরেরা প্রাচীর ডিঙিয়ে বাড়ির ভিতরে প্রবেশ করে। এরপর বাড়ির গেটের হুক কেটেছে। কোনো শব্দ হওয়ার ভয়ে বাড়ির বাইরে থাকা কাপড় দিয়ে গরু গুলোর মুখ বেঁধে পিকআপে তুলে নিয়ে গেছে। তিনি বলেন, গঞ্জের আলী অত্যন্ত গরীব কৃষক। এখন তার সবকিছু শেষ হয়ে গেছে।

কালীগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত মোতালেব হোসেন জানান, গরু চুরির ঘটনাটি সত্য। এ ঘটনায় থানাতে একটি অভিযোগ পেয়েছেন। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে।



আরও খবর