কালীগঞ্জে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি  :

কালীগঞ্জে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে শিউলি খাতুন (৩৫) নামের এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী আনিচুর রহমানের বিরুদ্ধে। উপজেলার বড় ডাউটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিউলি খাতুন একই উপজেলার দামোদরপুর গ্রামের মৃত সলেমান বিশ্বাসের মেয়ে এবং আনিচুর রহমান ডাউটি গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে। সোমবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিউলি মারা যান।

শিউলির ভাই শামিম হোসেন জানান, ১০ বছর আগে আনিচুর রহমানের সাথে তার বোন শিউলির বিয়ে হয়। তাদের সংসারে  এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। বিয়ের পর থেকে প্রায় ২ লাখ টাকার জন্য তার বোন শিউলিকে মারপিট করে বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দিত। গত ৬ দিন আগে তার বোনকে ২ লাখ টাকা যৌতুকের  দাবিতে  আনিচুর রহমান মারপিট করে। এতে গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে।  এরপর অসুস্থ অবস্থায় তাদের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। বৃহষ্পতিবার তাকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে সোমবার সে মারা যায়।

নিহত শিউলির ৮ বছর বয়সী মেয়ে সুরাইয়া জানায়, প্রায়ই তার মাকে বাবা মারপিট করতো। গত ৬ দিন আগে অনেক মেরেছিল। ২ দিন তার মাকে খেতেও দেয়নি। বাবা মাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সুলতান আহমেদ জানান, নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

কালীগঞ্জ থানার ওসি  ইউনুচ আলী জানান, বিষয়টি জানার পর আমি হাসপাতালে গিয়েছিলাম। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে এবং আসামীকে আটকের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।