মিরাজের রাজশাহীর কাছে কুমিল্লার হার

এদিন প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেটে ১৭৬ রান করে রাজশাহী। জবাবে ১৮.২ ওভারে ১৩৮ রান করতেই গুটিয়ে যায় কুমিল্লা।

 

রাজশাহীর দেওয়া লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৩৭ রানে প্রথম উইকেট হারায় কুমিল্লা। পিটিয়ে খেলতে থাকা তামিম ইকবালকে মার্শাল আইয়ুবের ক্যাচে পরিণত করেন তিনি। আউট হওয়ার আগে ২টি করে ছক্কা ও চারে সাজিয়ে ২৪ বলে ২৫ রান করেছেন তামিম।

তামিমের পর লিয়াম দাসোন (১৭), শহীদ আফ্রিদি (১৯) ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দীনের (০) উইকেট তুলে নিয়ে দলের জয়ে বড় ভূমিকা রাখেন রাব্বি।

এদিকে তামিমের বিদায়ের পর বেশিক্ষণ টিকে থাকেননি অন্য ওপেনার এনামুল হকও। ব্যক্তিগত ২৬ রানে (২৩ বলে) রায়ান টেন ডোশের শিকার হন তিনি। এরপর কুমিল্লার কোন ব্যাটসম্যানই দাঁড়াতে পারেননি সেইভাবে।

শামসুর রহমান ১১ বলে ১৫, জিয়াউর রহমান ৮ বলে ১২ ও ইমরুল কায়েস ১০ বলে ১৫ রান করে আউট হয়ে যান। শেষ দিকে অবশ্য আফ্রিদি কিছুটা আশা জাগান। কিন্তু তাকে ফিরিয়ে কুমিল্লার শেষ আশাটিও নিভিয়ে দেন রাব্বি।

রাজশাহীর হয়ে ১০ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন রাব্বি। এছাড়া ২টি করে উইকেট নিয়েছেন কাইস আহমেদ ও ডেশে। মোস্তাফিজুর রহমান ও আরাফাত সানি নিয়েছেন একটি করে উইকেট।