পাল্টাপাল্টি হামলায় ঝিকরগাছায় তিন সহোদরসহ জখম ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোরের ঝিকরগাছায় পাল্টাপাল্টি হামলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তিন সহোদরসহ ৪ জন জখম হয়েছেন। আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বুধবার বিকেলে উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামে দুইপক্ষের মধ্যে এই হামলার ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন ওই গ্রামের গোলাম হোসেনের তিন ছেলে মহিউদ্দিন (৪০), ফারুক হোসেন (৩০) ও মাহববুুর রহমান (২৫) এবং প্রতিপক্ষের ইমদাদুল হকের ছেলে ওলিয়ার রহমান (৫০)। যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসক ফারুক হোসেন ও ওলিয়ার রহমানকে ঢাকায় স্থানান্তর করেছেন।
হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণের পর মাহববুুর রহমান জানিয়েছেন, ঘটনার সময় প্রতিবেশী মৃত জামাল উদ্দিনের ছেলে মশিয়ারের নেতৃত্বে কালাম, মিকাইলসহ আরো কয়েকজন বাড়িতে হামলা চালিয়ে তাদের তিন ভাইকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে। এই ঘটনার পরই মশিয়ার রহমানের আশ্রয়দাতা মাদক স¤্রাট ওলিয়ার রহমান তাদের বাড়ির সামনে আসে। তখন লোকজন ক্ষুদ্ধ হয়ে ওলিয়ার রহমানকে কুপিয়ে জখম করে। মাহবুবুর রহমান জানান, তার আরেক ভাই মহিউদ্দিন চৌগাছা উপজেলা মডেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
ওলিয়ার রহমান জানান, গোলযোগের খবর শুনে তিনি মোটরসাইকেলে সেখানে যাওয়া মাত্র পিছন থেকে কে বা কারা তাকে কুপিয়ে জখম করে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে গ্রামে মাদক ব্যবসা নিয়ে আধিপত্য বিস্তার করতে তৎপর ওলিয়ার গং। সে ও তার পরিবার মাদকের ব্যবসা করে। তাদের হাতে জিম্মি রয়েছে গোটা গ্রাম। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে তার উপর হামলা চালানো হয়। গ্রাম ছাড়তে বাধ্য হতে হয়। প্রতিবাদ করতে গিয়ে এক যুবক এখনো নিরুদ্দেশ। মাদক ব্যবসার নিয়ে দীর্ঘদিনের দ্বন্ধের জের গতকালের ঘটনাটি।
হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের চিকিৎসক মনিরুজ্জামান লর্ড জানিয়েছেন, আহত ফারুক এবং ওলিয়ার রহমানের মাথার আঘাতটি গুরুতর। তাদের অবস্থা আশংকাজনক বলে মনে হচ্ছে। যে কারণে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।