যশোরে এমপি নাবিলের বাসভবন ও হোটেল জাবিরে বোমা হামলার ঘটনায় দুই মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোর-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদের বাড়ির আঙ্গিনায় এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিন চাকলাদারের মালিকানাধীন চিত্রামোড়ে হোটেল জাবির ইন্টারন্যাশনালে বোমা হামলা ও গুলি বর্ষণের অভিযোগে কোতয়ালি থানায় আলাদা দুইটি মামলা হয়েছে। উভয় মামলায় অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।
কোতয়ালি থানার এসআই হাসানুর রহমানের দায়ের করা এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, শনিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদের বাড়ির মধ্যে বোমা ও গুলি করা হয়েছে এমন সংবাদ পেয়ে সেখানে হাজির হই। বাড়িতে স্থাপন করা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে দেখা যায়, একটি সিলভার রং এর জিপ গাড়ি প্রথমে রেকি করে যায়। এরপর ২টি মোটরসাইকেলে করে ৫ অজ্ঞাত যুবক সেখানে গিয়ে দুইটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায়। শহরে আইন শৃঙ্খলার অবনতি করার উদ্দেশ্যে এবং কাজী নাবিল আহমেদ ও তার সঙ্গীরদের জীবন বিপন্ন ও সম্পত্তি ক্ষতি সাধনের জন্য বাড়ি লক্ষ্য করে দুই রাউন্ড গুলি ছোড়া হয়। বাড়ির ভেতর থেকে একটি অবিস্ফোরিত ককটেল এবং বিস্ফোরিত বোমার আলামত জব্দ করা হয়।
কোতয়ালি থানার এসআই এসএম শামীম আক্তার দায়ের করা এজাহারে উল্লেখ করেছেন, রোববার ভোর ৪টার দিকে চিত্রা মোড়স্থ হোটেল জাবির ইন্টারন্যাশনালে বোমা হামলা করা হয়েছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে যাওয়া হয়। হোটেলের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে দেখা যায়; ৪টি মোটরসাইকেলে করে এসে ১২জন দুষ্কৃতিকারী হোটেলের গ্লাসে বোমা ছুড়ে মারে। এতে গ্লাস ভেঙ্গে ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়। হোটেলে অবস্থিত অতিথিদের মধ্যে ভীতি ও আতংক সৃষ্টির লক্ষ্যে বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছিল। ঘটনাস্থল থেকে বিস্ফোরিত বোমার আলামত জব্দ করা হয়েছে। এই মামলায় শহর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক গুলিবিদ্ধ মেহবুব আলম ম্যানসেল এবং মেহেদী হাসান অনিক নামে এবং যুবককে আটক দেখানো হয়েছে।