যশোরে যুবলীগ নেতা ম্যানসেল গুলিবিদ্ধ, তিনটি পিস্তল ও ১২ রাউন্ড গুলি জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক:যশোর শহর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মেহবুব আলম ম্যানসেল গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তিনি শহরের ষষ্টিতলা পাড়ার সুরেন্দ্রনাথ রোডস্থ আলমাস হোসেনের ছেলে।
রোববার দিবাগত রাতে সন্ত্রাসীদের দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলিতে ম্যানসেল গুলিবিদ্ধ হয়েছেন এমন দাবি পুলিশ করলেও তার পরিবারের পক্ষ থেকে তা অস্বীকার করা হয়েছে। পরিবারের দাবি ম্যানসেলকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে পুলিশ বাম পায়ে গুলি করেছে।
এর আগেও ২০০৮ সালে পুলিশের গুলিতে জখম হয়েছিলেন ম্যানসেল। ডান পায়ে গুলি লাগার কারণে সে সময় থেকে তিনি খুঁড়িয়ে হাঁটতেন।
কোতয়ালি থানার ওসি অপূর্ব হাসান জানিয়েছেন, রোববার দিবাগত রাত দুইটার দিকে ষষ্টিতলা পাড়ায় গোলাগুলি হচ্ছে এমন সংবাদ পেয়ে সেখানে পুলিশ যায়। সন্ত্রাসীরা এসময় পুলিশ দেখে পালিয়ে যায়। সেখান থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ম্যানসেলকে দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর আগে আহত অবস্থায় পুলিশকে লক্ষ্য করে ম্যানসেল এক রাউন্ড গুলি ছোড়ে। সে সময় মেহেদি হাসান অনিক নামে এক যুবককে আটক করা হয়। সে আশ্রম রোড এলাকার আলী হোসেনের ছেলে। আর সেখান থেকে তিনটি ম্যাগজিনসহ তিনটি পিস্তল ও ১২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় কোতয়ালি থানার এসআই সাহিদুল আলম আলাদা দুইটি মামলা করেছেন। এই মামলায় ম্যানসেল ও অনিককে আটক দেখানো হয়েছে। ম্যানসেল পুলিশি প্রহরায় চিকিৎসা নিচ্ছেন।
এছাড়া শনিবার দিবাগত রাতে গাড়িখানা রোডন্থ হোটেল জাবির ইন্টারন্যাশনাল লক্ষ্য করে বোমা হামলা চালানো হয়। এই ঘটনায় পুলিশের দায়েরকরা মামলায় ম্যানসেলকে আসামি করা হয়। ওই মামলাও তাকে আটক দেখানো হয়েছে।
ম্যানসেলের পিতা আলমাস হোসেন জানিয়েছেন, রাত আড়াইটার দিকে সাদা পোশাকের একদল পুলিশ তার বাড়ি ঘিরে রাখে। এরপর তাকে আটক করে। সেখানে গুলির শব্দ শোনা যায়। তারা ঘরের বাইরে বের হতে চাইলেও বাইরে থেকে পুলিশ আটকে রাখে। সে কারণে তারা বের হতে পারেননি। পরে জানতে পারেন তার ছেলে হাসপাতালে রয়েছেন। সকালে হাসপাতালে গিয়ে তার বাম পায়ে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দেখতে পান।
এলাকার একটি সূত্র জানিয়েছে, রাতে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ম্যানসেল প্রাচীর টপকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু পুলিশ পিছু ধাওয়া করে তিনটি বাড়ি পেরিয়ে শহর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হাসান ইমাম লালের বাড়ির মধ্যে গিয়ে ম্যানসেলকে আটক করে পুলিশ।