যশোর শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে ক্যারিয়ার ক্যাম্প

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোরে তরুণদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে ক্যারিয়ার ক্যাম্প শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিনব্যাপি এ আয়োজনে সকালে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে প্রযুক্তি ভিত্তিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
সকালের উদ্বোধনী পর্যায়ে প্রধান অতিথি ছিলেন আইসিটি ডিভিশনের অতিরিক্ত সচিব পার্থপ্রতিম দেব।
বিশেষ অতিথি ছিলেন এলআইসিটি প্রকল্প পরিচালক রেজাউল করিম এনডিসি ও যশোরের জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল।
বৃহস্পতিবার বিকেলে অনুষ্ঠত হয় ক্যারিয়ার ক্যাম্পের সমাপনী অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন এলআইসিটি প্রকল্প পরিচালক রেজাউল করিম, এনডিসি। বিশেষ অতিথি ছিলেন যশোরের জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল, এক্সপ্রেশন লিমিটেডের ডিরেক্টর সৈয়দ আপন হাসান, শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের সাডু প্রকল্পের সভাপতি আহসান কবীর। এতে ১৯৫ জন বেকার তরুণ-তরুণীর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরির সুযোগ পায়।
এতে আরও অংশ নেন শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের সাডু প্রকল্পের সেক্রেটারি ইঞ্জিনিয়ার শাহ জালাল, শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম, কেকে ডেসটিনির কান্ট্রি এডমিন সাজ্জাদুর রহমান রোবো, জেএসআর আইটির সিইও সাইফুল ইসলাম, জ্যানথিকের সিইও আবু সাইদ চঞ্চল, মাইকোড্রিম আইটির সিইও ইঞ্জিনিয়ার শাহনুর শরীফ, বর্ণ আইটির সিইও উজ্জ্বল বিশ্বাস, যশোর আইটি সিইও রাকিব হাসান, চাকলাদার কর্পের সিইও ইমানুর রহমান ইমন, উৎসব টেকনোলজির সিইও অজয় দত্ত, ফাইনেস ওয়েবগিক-এর সিইও আবু জুবায়ের পিয়াস, অনইয়ারের মোহাম্মদ হাসান, আমরা আইটির রাজিব হাসান প্রমুখ।
সমগ্র আয়োজনে আয়োজক ছিল তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের আওতায় লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লোয়মেন্ট অ্যান্ড গভর্নেন্স প্রজেক্ট (এলআইসিটি)।
আর সহযোগিতায় ছিল বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফর্মেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এবং বাংলাদেশ অ্যাসেসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্য)।
এর আগে বুধবার খুলনায় অনুষ্ঠিত জব ফেয়ারে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক, যশোরের ১২টি আইটি প্রতিষ্ঠানসহ দেশের শীর্ষস্থানীয় ২৫টি আইটি কোম্পানির প্রতিনিধিরা অংশ নেয়।
উপস্থিত ছিলেন এলআইসিটি প্রকল্প পরিচালক রেজাউল করিম, এনডিসি, অগমেডিক্স বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর রাশেদ মুজিব নোমান এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা।
সঞ্চালনা করেন হাসান বেনাউল ইসলাম।