যশোরে সাক্ষীকে হুমকি ও মারপিটের ঘটনায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক>
আদালতে দায়ের করা একটি মামলার সাক্ষীকে চাঁদার দাবিতে হুমকি মারপিট এবং বাড়িতে ঢুকে টাকা ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনার যশোর কোতয়ালি থানায় একটি মামলা হয়েছে। সদর উপজেলার বাজুয়াডাঙ্গা গ্রামের মৃত মনিন্দ্র নাথ চক্রবর্তীর ছেলে সুশান্ত চক্রবর্তী বাদি হয়ে একই পরিবারের ৪জনকে আসামি করে মামলাটি করেন।
আসামিরা হলেন, একই গ্রামের মৃত মহেন্দ্র নাথ পালের তিন ছেলে বিশ্বনাথ পাল (৪৮), অন্য পাল (৩৮) ও গুরু পাল (৩০) এবং বিশ্বনাথ পালের ছেলে অরুণ পাল (২৬)।
বাজুয়াডাঙ্গা গ্রামের সুশান্ত চক্রবর্তী এজাহারে উল্লেখ করা হয়, একই গ্রামের বাপ্পি ভদ্র আদালতে আসামিদের নামে একটি সি/আর মামলা করেন। এই মামলার সাক্ষী তিনি। সে কারণে আসামিরা তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়। এবং তার কাছে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। তিনি চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তার ক্ষতি করার ষড়যন্ত্র করে। গত ৩ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৯টার দিকে আসামিরা তার বাড়িতে ঢোকে এবং চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় আসামিরা তাকে নানাভাবে হুমকি দেয়। এ সময় তার স্ত্রী কনিকা চক্রবর্তী এগিয়ে আসলে তার পরণের কাপড় ধরে টানাহেচড়া করে শ্লীলতাহানী ঘটায়। পরে ঘরের মধ্যে ঢুকে শোকেজের মধ্যে ব্যবসার কাজে রাখা ৩৫ হাজার টাকা নিয়ে যায়। যাওয়ার আগে ফের খুন জখমের হুমকি দেয়।