কেশবপুরের নাশকতা পরিকল্পনা ও বিস্ফোরক মামলায় চার্জশিট, অভিযুক্ত ১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোর কেশবপুরের একটি নাশকতার পরিকল্পনা ও বিস্ফোরক মামলায় ১৮ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ফজলে রাব্বি মোল্যা।
অভিযুক্তরা হলো, কেশবপুর উপজেলার মূলগ্রামের তোফাজ্জেল হোসেন ও তার ছেলে এহসানুল কবির, নতুন মূলগ্রামের মৃত আখেজ গাজীর ছেলে আবুল হোসেন আলাল, মৃত আকেশ আলালের ছেলে আব্দুল মান্নান, বারুইহাটি গ্রামের মৃত রিশাদ আলীর গাজীর ছেলে আবুল হোসেন, সাগরদাড়ি গ্রামের আবুল হোসেন সানার ছেলে হাফিজুর রহমান, গৌরিঘোনা গ্রামের দক্ষিণপাড়ার মৃত আবুল কাশেম সরদারের ছেলে শহিদুল ইসলাম, তেঘরি গ্রামের মৃত নওয়াব আলী খাঁ’র ছেলে শাহজাহান, ঝিকরা গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে আক্তারুজ্জামান, বরণডালী গ্রামের আরশাদ আলীর ছেলে আশরাফুল ইসলাম, হাসানপুর গ্রামের রজব আলী মাস্টারের ছেলে হাবিবুর রহমান, রামচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত মজিদ মাওলানার ছেলে ইমরান হোসেন, কন্দর্পপুর গ্রামের আব্দুর রশিদ সানার ছেলে ইমরান হোসেন, সরশকাঠি গ্রামের মৃত তাছির উদ্দিন গাজীর ছেলে মুনসুর আলী, বারুইহাটি গ্রামের নওশের আলী মোল্যার ছেলে জালাল উদ্দিন, সাতবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে আব্দুস সামাদ, মণিরামপুরের জয়পুর গ্রামের এনায়েত আলী মহলদারের ছেলে আলমগীর হোসেন, হাজরাকাটি গ্রামের ছবেদ আলীর ছেলে আব্দুল ওয়াদুদ বিপ্লব ও সাতক্ষীরার তালা উপজেলার মনিরুজ্জামান শেখের ছেলে শরিফুল ইসলাম ।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ১০ নভেম্বর কেশবপুর থানা পুলিশ গোপন সংবাদে জানতে পারে মূলগ্রামের তোফাজ্জেল হোসেনের বাড়িতে আসামিরা নাশকতার উদ্দেশ্যে জড়ো হয়ে বৈঠক করছে। পুশিল ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তোফাজ্জেল হোসেন ও তার ছেলে এহসানুল কবিরকে আটক করে। এসময় বিস্ফোরিত বোমার আলামত উদ্ধার করা হয়। এব্যাপারে এসআই শাহজাহান আহম্মেদ বাদী হয়ে আটক দুইজনসহ অপরিচিত ২৫/৩০ জনকে আসামি করে কেশবপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। এ মামলার তদন্ত শেষে আটক আসামিদের দেয়া তথ্য ও স্বাক্ষীদের বক্তব্যে ঘটনার সাথে জড়িত অভিযোগ পাওয়ায় ওই ১৮ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।