যশোর-ঝিনাইদহ মহাসড়কে গুড়ি ফেলে ডাকাতি, জখম ২

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোর-ঝিনাইদহ মহাসড়কের সদর উপজেলার হৈবতপুরের মানিকদিহি এলাকায় ডাকাতের হামলায় প্রাণ কোম্পানির কাভার্ডভ্যানের চালক খলিলুর রহমান (৫২) ও সহকারী কাকন হোসেন (২৮) জখম হয়েছেন। মহাসড়কে গাছের গুঁড়ি ফেলে ডাকাতির সময় দুর্বৃত্তরা তাদের হাতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। ডাকাতরা এসময় বিভিন্ন যানবাহনের চালকদের জিম্মি করে নগদ টাকাসহ মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। আহত দুইজনকে ভোর ৬টার পর যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে বেলা ১১টার দিকে তারা হাসপাতাল ছেড়ে যান।
আহত খলিলুর রহমান (৫২) ও সহকারী কাকন হোসেন, নরসিংদী জেলার ঘোড়াশাল থেকে কাভার্ডভ্যানে করে লিচু ড্রিংকস নিয়ে তিনি সাতক্ষীরার ভোমরা বন্দরের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন। ভোর সাড়ে ৪টার দিকে যশোর-ঝিনাইদহ মহাসড়কের মানিকদিহি এলাকার একটি ফিলিং স্টেশনের অদূরে পৌঁছাতে সড়কে যানবাহনের দীর্ঘ লাইন দেখে কাভার্ডভ্যানের গতিরোধ করে। এসময় কয়েকজন দুর্বৃত্ত আকস্মিক তাদের উপর হামলা চালায়। দুর্বৃত্তরা প্রথমে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের হাতে আঘাত করে। পরে কাছে থাকা আনুমানিক ১২ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে তারা জানতে পারে সড়কে গাছের গুঁড়ি ফেলে ডাকাতি হচ্ছে। ডাকাতরা বাস, ট্রাক ও কাভার্ডভ্যানসহ বিভিন্ন যানবাহনের চালকদের জিম্মি করে কয়েক লাখ টাকাসহ মালামাল ছিনিয়ে নিয়েছে। দুর্বৃত্তরা প্রায় ১ ঘন্টা সড়কে অবস্থান নিয়ে ডাকাতি করে। দুর্বৃত্তরা স্থান ত্যাগ করার পর ভুক্তভোগীদের চিৎকারে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে আসে। জখম অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে আনে।
হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা.এনকে আলম জানান, আহত দুইজনের অবস্থা খুব বেশি খারাপ ছিলো না। সার্জারী ওয়ার্ডে তারা চিকিৎসাধীন ছিলেন। কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ার পর তারা হাসপাতাল থেকে চলে গেছেন।
চুড়ামনকাটির সাজিয়ালি পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই সুকুমার কুন্ডু বলেন, হৈবতপুরের মানিকদিহি এলাকায় সড়কে গুঁড়ি ফেলে ডাকাতির খবর পেয়ে তিনি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। ডাকাতরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ পৌঁছে যাওয়ায় ডাকাতরা টাকা পয়সা ও মালামাল লুট করতে ব্যর্থ হয়েছে।