যশোরে বিজিবি-বিএসএফ সীমান্ত সমন্বয় সম্মেলন শুরু রোববার

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোরে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) ১১তম সীমান্ত সমন্বয় সম্মেলন শুরু হবে আজ রোববার। চারদিনের (১৭-২০ ফেব্রুয়ারি) সম্মেলনে বিজিবির যশোর ও রংপুর রিজিয়ন কমান্ডার এবং বিএসএফ’র নর্থ বেঙ্গল, সাউথ বেঙ্গল ও গোহাটি ফ্রন্টিয়ার পর্যায়ের কর্মকর্তারা অংশ নিবেন। এছাড়াও দুই দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারাও উপস্থিত থাকবেন।
শনিবার সকালে এক বিজ্ঞপ্তিতে বিজিবি দক্ষিণ-পশ্চিম রিজিয়নের পরিচালক (অপারেশন) আহমেদ জুনাইদ আলম খান জানান, যশোর শহরের অভিজাত হোটেল জাবির ইন্টারন্যাশনালে চারদিনের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এতে বিজিবি উত্তর-পশ্চিম রিজিয়ন রংপুরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আবু তাহের মোহাম্মদ ইব্রাহীম এনডিসি এর নেতৃত্বে ১৫ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন। বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলে বিজিবি দক্ষিণ-পশ্চিম রিজিয়ন, যশোর এর রিজিয়ন কমান্ডার এবং যশোর ও রংপুর রিজিয়নের সংশ্লিষ্ট সেক্টর কমান্ডারগণ, বিজিবি সদর দপ্তরের প্রতিনিধি, পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধিবৃন্দ অংশগ্রহণ করবেন।
অপরদিকে বিএসএফ সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ারের আইজি শ্রী ইয়াগেশ বাহাদুর খুরানিয়া, আইপিএস এর নেতৃত্বে ১১ সদস্যের ভারতীয় প্রতিনিধিদল সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন। ভারতীয় প্রতিনিধিদলে বিএসএফ নর্থবেঙ্গল ও গোহাটি ফ্রন্টিয়ারের আইজি,সংশ্লিষ্ট ফ্রন্টিয়ারের ডিআইজিগণ, ফ্রন্টিয়ার ও সেক্টর পর্যায়ের স্টাফ অফিসারবৃন্দ, ভারত সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধিবৃন্দ অংশগ্রহণ করবেন।
সম্মেলনের আলোচ্য বিষয়ের মধ্যে মাদক ও নেশাজাতীয় দ্রব্যের চোরাচালান, অস্ত্র ও গোলাবারুদ চোরাচালান, সীমান্তে নিরস্ত্র বাংলাদেশী নাগরিকদের গুলি, হত্যা, সীমান্তে বাংলাদেশী নাগরিক আটক, অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম, সীমান্ত এলাকায় কাটাতারের বেড়া নির্মাণ কাজ সংক্রান্ত ইস্যু, সীমান্তে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ, বিজিবি-বিএসএফ সমন্বিত টহল, উভয় বাহিনীর মধ্যে পারস্পরিক আস্থা বৃদ্ধি এবং যৌথ সেমিনার/সিম্পেজিয়াম/ওয়ার্কসপ ইত্যাদি বিষয় আলোচনায় স্থান পাবে। সম্মেলন শেষে আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ হতে ভারতে প্রত্যাবর্তন করবেন।