যশোর দড়াটানায় দোকান উচ্ছেদ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোর শহরের দড়াটানায় তাজ স্ন্যাক্স উচ্ছেদ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে মরহুম আব্দুল মজিদ বিশ্বাসের ওয়ারেশরা। তাদের দাবি, ওই সম্পত্তি ভারত স¤্রাটের কাছ থেকে তাদের পূর্বসুরীদের বন্দোবস্ত নেয়া। পর্যায়ক্রমে এই জমি দীর্ঘদিন ভোগদখল করে আসছে তারা। যার কারণে ওই সম্পত্তির মালিকানা তাদের। মঙ্গলবার প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানিয়েছেন পরিবারের পক্ষে আকতার জাহীদ।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন এডিএম দাউদুল ইসলাম, আমেনা বেগম, মাহামুদা হাসান, শহিদুল ইসলাম, শাকুর মাহমুদ শোভন, তহিদুল ইসলাম শান্ত, অ্যাডভোকেট সাদেকা খাতুন বিল্লু প্রমুখ।
লিখিত বক্তব্য পাঠকালে আকতার জাহীদ বলেছেন, তার পিতা মরহুম আব্দুল মজিদ বিশ্বাসের পূর্ব পুরুষগণ ভারত স¤্রাটের কাছ থেকে যশোর শহরের প্রাণকেন্দ্র দড়াটানায় ১২ শতক জমি বন্দোবস্ত নেন। পর্যায়ক্রমে তার ওয়ারেশগণ এ জমি ভোগদখল করে আসছেন। এরপর ১৯৮৮ সালের ৫ নভেম্বর বন্দোবস্তটি নবায়ন করা হয়। আর সেই থেকে জমিটি আব্দুল মজিদ বিশ্বাস পরিবার ভোগ দখল করে আসছিলেন।
তিনি বলেন, কোন প্রকার নোটিশ ছাড়াই গত ১৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে জমিতে থাকা দোকানপাট ভাঙচুর করে বুলডোজার দিয়ে গুড়িয়ে দেয়া হয়। একই সাথে সূর্য ওঠার আগেই সেখানে পিচ দিয়ে রাস্তা তৈরি করে দেয়া হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, এব্যাপারে কয়েকটি পত্রিকা প্রকৃত তথ্য আড়াল করে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। একই সাথে অবৈধভাবে দখলকৃত জমি পুনরুদ্ধার করার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। যা সত্য নয়। এ জমির কাগজপত্র আমাদের কাছে আছে বলে তিনি জানিয়েছেন । ভুল তথ্য দিয়ে সংবাদ পরিবেশন করায় পরিবারের সদস্যদের জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে মানসম্মান হানি হয়েছে।