কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী ছোট বাবু শার্শায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক>
১৯ মামলার আসামি যশোরের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী এবাদত হোসেন বাবু ওরফে ছোট বাবু (২৬) ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শার্শায় নিহত হয়েছেন। তিনি শহরের ষষ্টিতলা পাড়ার বাচ্চু ড্রাইভারের ছেলে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে শার্শা উপজেলার কুঁচিয়ামোড়া গ্রামে দুইদল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে তিনি নিহত হন বলে পুলিশ জানিয়েছে।
শার্শা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তাসমীম আলম জানিয়েছেন, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে কুঁচিয়ামোড়া গ্রামে দুইদল মাদক কারবারীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ বাঁধে। সংবাদ পেয়ে সেখানে পৌছালে অন্যান্যরা পালিয়ে যায়। সেখান থেকে এক যুবককে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
পরে জানাগেছে তার বাড়ি যশোর শহরের ষষ্টিতলা এলাকায়। ঘটনাস্থল থেকে এক কেজি গাঁজা, একটি ওয়ান স্যুটারগান এবং এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় শার্শা থানায় আলাদা দুইটি মামলা হয়েছে।
যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আনসার উদ্দিন জানিয়েছেন, বাবু কুখ্যাত মাদক কারবারী। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, বিস্ফোরক আইনসহ ১৯টি মামলা আছে। বেশিরভাগ মামলা হয়েছে মাদক আইনে।
এলাকার একটি সূত্র জানিয়েছে, নিহত বাবু ও তার পরিবারের সদস্যরা মাদক ব্যবসায়ী। এমনকি তার শ্বশুর চাঁচড়া রায়পাড়া এলাকার সেকেন্দারও তালিকাভূক্ত মাদক ব্যবসায়ী। ছোট বাবুর ভাইরা ভাই ভাইপো সাইদ শহরের কুখ্যাত সন্ত্রাসী ও মাদক কারবারী। তার বিরুদ্ধে একাধিক হত্যা মামলা আছে। বছর খানেক আগে ভাইপো সাইদ ও তার সহযোগী শাওন পুলিশের কাছ থেকে পালিয়ে যায়। এরপর থেকে তারা নিখোঁজ রয়েছে।
এদিকে ছোট বাবুর ভাই সবুজ জানিয়েছেন, ‘সোমবার রাতে সাদা পোশাকের একদল পুলিশ ছোটব াবুকে তার শ্বশুরবাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর তার আর খোঁজ পাওয়া যায়নি। বুধবার সকালে জানতে পারি বাবুর লাশ যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে রয়েছে। সেখানে গিয়ে ভাইয়ের লাশ সনাক্ত করি।’