সখিনা বালিকা বিদ্যালয়ে কৃতী ছাত্রীদের সংবর্ধনা ও মা সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোর সখিনা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের কৃতী ছাত্রীদের সংবর্ধনা ও মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রধান অতিথি ছিলেন যশোর-১ (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য ও বিদ্যালয়ের সভাপতি শেখ আফিল উদ্দিন। বুধবার বিদ্যালয়ে ২০১৭-২০১৮ সালের জেএসসি পরীক্ষার কৃতী ছাত্রীদের সংবর্ধনা ও মা সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্রধান শিক্ষক রওশানারা ছবি।
অনুষ্ঠানে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি বলেন, মায়ের শ্রেষ্ঠ সম্পদ হল সন্তান। সেই সন্তানকে সম্পদশারীতে পরিণত করে তুলতে হবে। তবেই সার্থক হবে মায়ের পরিশ্রম। তিনি বলেন সন্তানকে স্কুলে পাঠালেই সে শ্রেষ্ঠ সন্তান হবে না। এজন্য বাবাকে ছেলের বন্ধু, মাকে হতে হবে মেয়ের বান্ধবী। তবে তারা শ্রেষ্ঠ সন্তান হয়ে গড়ে উঠবে। সেই সন্তানের ভালো ফলাফল অর্জন করাতে হলে পড়ার চেয়ে বেশি বেশি লেখাতে হবে। তিনি আরো বলেন আপনার সন্তানের সংবর্ধনা ক্রেস্টটি এমন স্থানে রাখতে হবে। এটি দেখে আত্মীয় স্বজনরা তাকে উৎসাহ যোগাবেন। সেইসাথে আপনার সন্তানের মনে আগামীতে ভালো ফলাফল অর্জন করার উৎসাহ জাগবে। বক্তব্যের শেষের দিকে সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন বলেছেন সখিনা বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা বা অন্য বিদ্যালয়ের চেয়ে পরপর তিনবার ভালো ফলাফলের হ্যাটট্টিক করলে তিনি খুশি হবেন। পরিচালনা করেন সহকারী শিক্ষক শিমুল আখতার। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ২০১৭ সালের জেএসসি পরীক্ষার ৪৭জন কৃতী ছাত্রী ও ২০১৮ সালের জেএসসির ৩২জন কৃতী ছাত্রীকে সংবর্ধনা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। সেই সাথে সংবর্ধনা প্রাপ্ত ছাত্রীদের হাত দিয়ে তাদের মাকে মেডেল পরিয়ে দেয়া হয়।
সংবর্ধনা প্রাপ্ত কৃতী ছাত্রীরা হলো কেয়া দেবনাথ, মাহিম শারমিন মিম, সুমাইয়া সিকদার, তায়েরা আলী, মালিহা মুমতাজ হৃদি, সানজিদা আক্তার রাফি, রামিসা রাবাব, মেহেরজান উর্মী, সাদিয়া সুলতানা, বুশরা ইসলাম আনিশা, এসকে ইশরাত জাহান লিউমি, নুসরাত জাহান মালিহা, রেজওয়ানা খানম তনি, নাজিরা আক্তার পিংকিং, জেরিন তাসনিম, তানহা আলী, উমামা তাবাসসুম মিশৌরী, কানিজ ফাতেমা মৌন, তাসনোভা ইসলাম আদ্রিতা, আফিয়াত হুসাইন তনু, সুমাইয়া আলমগীর সারা, তাসমিয়া জেসমিন, ইসরাত জাহান ঐশী, তানিয়া ইসলাম, অর্পিতা শারমিন রিনাত, ইসরাতুন সাদিকা হৃদি, তানিয়া সুলতানা তারিন, সৈয়দা আফিয়া আনজুম সূচী, সানজিদা আক্তার মুন, ফারজানা বিনতে সেলিম, সানজিদা সুলতানা অংকা, তাহিরা তাসকিন তুবা, প্রিয়ন্তী মজুমদার, অন্বীতা চক্রবর্তী পূজা, মেহরিন মুবাশশিরা এশা, সাফকাত জাহান এমা, জান্নাতুল ফেরদৌস শর্মী, মাহফুজা আক্তার মিম, সাদিয়া ফেরদৌস সিনথিয়া, তাজবিতা তাসনিম তুনজি, সারজিনা আক্তার, সাফিয়া ইফফাত জারিন, সানজিদা আক্তার রিয়া, সানজিদা আক্তার রশ্নী, লাবিবা রাইশা, রাবেয়া আক্তার জুঁই, লাবিবা নওরীন, জান্নাতুল নাইমা, হুমাইরা আলমগীর, সামিয়া রহমান চিত্রা, ইসরাত জাহান অহনা, এলমা ইয়াসমিন মিলকী, তাহিয়াত সুবহা প্রিয়ন্ত্রী, আয়েশা আক্তার মিম, পুরঙ্গনা আহসান, জেরিন তাসনিম সুজানা, সেগুফতা ইসলাম অতসী, নাদিয়া ইসলাম জিদনী, তাবাসসুম সাইদ অর্পি, চন্দ্রিমা জাহান নওমী, তিথি চৌধুরী, ফাতেমা তাহসিন রাইসা, লিসানা রহমান তিয়া, চৈত্রী পাল, সিমিন নূর, সানজিদা ইয়াসমিন, নাসরুল রুদাবা, তাসনিয়া আশরা আদ্রিতা, সামিয়া ইসলাম, ইশরাত জাহান এলমা, সাদিয়া বিনতে খালিদা, সুরাইয়া আক্তার মিম, রাইশা সামিহা মাইশা মালিহা, আফিয়া মুবাশশিরা রহমান ও ফারিহা মাহবুব। অনুষ্ঠান শুরুর আগে বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা নাটক দেশাত্মবোধক গান ও গানের সাথে নৃত্য পরিবেশ করে।