হাজিরবাগে আবুল ইসলামের স্মরণ সভায় বক্তারা> বর্তমান সময়ের রাজনৈতিক নেতাদের তার আদর্শ অনুকরণ করা উচিত

এম আলমগীর, বাঁকড়া (ঝিকরগাছা)>মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, সাবেক প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য, গণপরিষদ সদস্য, স্বাধীনতার পর প্রথম জাতীয় সংসদ সদস্য এবং বঙ্গবন্ধুর সাবাস চেয়ারম্যান খ্যাত আলহাজ আবুল ইসলামের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের বক্তারা বলেছেন, আবুল ইসলাম ছিলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রকৃত সৈনিক। বর্তমান সময়ের রাজনৈতিক নেতাদের তার আদর্শ অনুকরণ করা উচিত। তিনি সারা জীবন দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের স্বার্থে কাজ করে গেছেন। বক্তারা আরো বলেন, বর্তমানে দেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করার জন্য ২০ দলীয় জোট চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। একাত্তরের মত মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করছে। তাই মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে একতাবদ্ধ হয়ে তাদের প্রতিহত করতে হবে এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শে দেশ গড়তে হবে।
বুধবার বিকালে আবুল ইসলাম মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ফাউন্ডেশন চত্ত্বরে এক স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের বক্তারা এসব কথা বলেন।
হাজিরবাগ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. মোস্তফা আসাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে এবং নির্বাসখোলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক আলমগীর হোসেনের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, আবুল ইসলামের বড় ছেলে মহিদুল ইসলাম স্বপন, ছোট ছেলে ও জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মাজহারুল ইসলাম প্রিন্স, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাস্টার এনামুল কবীর, সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবুল কাশেম, হাজিরবাগ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. আতাউর রহমান মিন্টু, নির্বাসখোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম, হাজিরবাগ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুস সামাদ খান সাধারন সম্পাদক বজলুর রহমান, বাঁকড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মাস্টার হেলালউদ্দীন খান, শংকরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক শরিফুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক মাস্টার আদম শফিউল্লাহ, নির্বাসখোলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব শাহাদৎ হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা ছিদ্দিক হোসেন, জাহারুল ইসলাম, তোফাজ্জেল হোসেন, প্রধান শিক্ষক জিল্লুর রশিদ, ইউপি সদস্য আতিয়ার রহমান, সাবেক ছাত্রনেতা প্রভাষক আসাদুজ্জামান, নুরুল হক, রাসেল খান প্রমূখ।