ডুমুরিয়ায় যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ডুমুরিয়া (খুলনা) সংবাদদাতা>
খুলনার ডুমুরিয়া থানা পুলিশ রবিবার বিকালে মির্জাপুর গ্রামের একটি বাগান থেকে শুভ মন্ডল নামে এক যুবকের ঝুলন্ত উলঙ্গ লাশ উদ্ধার করেছে। সে মির্জাপুর গ্রামের দিনমজুর অজিত মন্ডলের ছেলে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মির্জাপুর গ্রামের চৌরাস্তা মোড়ে সাজিয়াড়া গ্রামের সাদ্দাম হালদার নামের এক সাইকেল গ্যারেজ মিস্ত্রি শনিবার দুপুর একটার দিকে শুভ মন্ডলের(২২) কাছে দুইশ’ টাকা দিয়ে ডুমুরিয়া বাজার থেকে সাইকেলের নাটবোল্ট আনতে দেয়। পথিমধ্যে শুভ’র কাছে থাকা ওই টাকাগুলো খোয়া যায়। ফিরে এসে শুভ সাদ্দামকে বিষয়টি জানায়। এতে গ্যারেজ মিস্ত্রী সাদ্দাম প্রচন্ড ক্ষিপ্ত হয়ে শুভকে বলে তুই টাকা দিয়ে তারপর দোকান থেকে যাবি। এমনকি শুভকে মারধরও করা হয়। সে বাড়ি থেকে টাকা এনে দিতে চেয়েছিলো। কিন্তু সেও সুযোগ দেওয়া হয়নি তাকে। শেষমেশ শুভকে পরণের কাপড় খুলে গ্যারেজ থেকে ময়লা মাখা একটুকরা কাপড় নিয়ে উলঙ্গ অবস্থায় বের করে দেয়া হয়। লজ্জায় স্থানীয় এক বাগানে যেয়ে একটি মেহগণি গাছের সাথে গলায় সেই কাপড় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা যায়।
এ প্রসঙ্গে গ্যারেজ মিস্ত্রী সাদ্দাম বলেন, আমি তাকে বলেছিলাম টাকা না দিয়ে দোকান থেকে বের হতে দেব না। একপর্যায়ে তার পরণের লুঙ্গি, গামছা ও জুতা খুলে দোকান থেকে একটি কাপড় নিয়ে চলে যায়। আমি ভাবতেও পারিনি সে এখান থেকে যেয়ে আত্মহত্যা করবে। স্থানীয় শ্যামল মিস্ত্রী জানায়, শুভ দোকান থেকে যে কাপড়ের টুকরো জড়িয়ে বের হয়েছে তাতে লজ্জা নিবারণ হয়না।
এ বিষয়ে থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমিনুল ইসলাম বিপ্লব বলেন, মির্জাপুরে অরুণ মহলদারের বাগানে একটি মেহগণি গাছ থেকে শুভ মন্ডলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে গতকাল সোমবার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড হয়েছে। রিপোর্ট পেলে পরবর্তি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।