যশোরে শাফা হত্যায় ব্যবসায়ীসহ দুইজন ডিবির হেফাজতে

নিজস্ব প্রতিবেদক>
যশোরের আলোচিত মটরপার্টস ব্যবসায়ী মহিদুল ইসলাম শাফা হত্যাকন্ডের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আর এন রোডের ব্যবসায়ী সেলিম তরফদারসহ দুইজনকে হেফাজতে নিয়েছে ডিবি পুলিশ।
গত ১ জানুয়ারি সন্ধ্যায় প্রকাশ্যে শহরের ঈদগাহের সামনে মুজিব সড়কে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে খুন হন ব্যবসায়ী মহিদুল ইসলাম শাফা। নিহত শাফা শার্শা উপজেলার ধান্যখোলা গ্রামের নবিস উদ্দিনের ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত রানা, রাকিব ও শাহাবুদ্দিন নামে ৩ জনকে আলাদাভাবে আটক করে ডিবি পুলিশ। পরে তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। তাদের জবানবন্দিতে বেরিয়ে আসে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী ও অর্থদাতা হিসেবে ব্যবসায়ী চৌধুরী আনোয়ার রেজা ওরফে ওয়াশিংটনের নাম। তিনি শহরের বেজপাড়া নলডাঙ্গা রোড এলাকার চৌধুরী আলী রেজার ছেলে। গত ৫ মার্চ রাত ৯টায় যশোর শহরের খড়কির শাহ আব্দুল করিম রোড এলাকা থেকে তাকে আটক করে ডিবি পুলিশ। এ সময় ওয়াশিংটনের কাছ থেকে একটি ওয়ান শ্যুটার গান, এক রাউন্ড গুলি ও পাঁচশ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওয়াশিংটনের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে কোতয়ালি মডেল থানায় আলাদা দুটি মামলা করা হয়। এর মধ্যে অস্ত্র মামলায় আদালতে তার ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন জানানো হয়। গত সোমবার শুনানি শেষে আদালত ওয়াশিংটনের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সূত্র জানায়, রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে ব্যবসায়ী শাফা হত্যার ব্যাপারে গুরত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন ওয়াশিংটন। তারই দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার বিকেলে আর এন রোডের ব্যবসায়ী সেলিম তরফদার ও নিহত শাফার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক মোতালেব হোসেন টুটুলকে আটক করে ডিবি পুলিশ।
এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই শামীম হোসেন জানান, সেলিম তরফদার ও মোতালেব হোসেন টুটুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।