যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্ত আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন : রাশিয়া-তুরস্ক

তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা নিশ্চিতভাবেই এ ধরনের সিদ্ধান্ত এবং এ ধরনের স্বাক্ষরকে (ট্রাম্পের ডিক্রিতে স্বাক্ষর) সমর্থন করি না, কারণ এটি আন্তর্জাতিক আইন ও জাতিসংঘের রেজ্যুলেশনের বিরুদ্ধে।’

ক্যাভুসোগ্লু বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্ত এই অঞ্চলের শান্তি ও স্থিতিশীলতায় কোনো ভূমিকা রাখবে না, ‍উল্টো অস্থিতিশীলতা ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করবে।’

অন্যদিকে, রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ল্যাভরভ বলেন, রাশিয়াও এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করে না।

তিনি বলেন, ‘এটি (ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত) আন্তর্জাতিক আইনের বিরুদ্ধে। এর মাধ্যমে সকল আন্তর্জাতিক আইনকে লঙ্ঘন ও উপেক্ষা করা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, গত সোমবার ডোনাল্ড ট্রাম্প ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর উপস্থিতিতে একটি ডিক্রিতে সই করেন। যেখানে দখলকৃত গোলান মালভূমিতে ইসরাইলের সার্বভৌমত্বকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৯৬৭ সালে ছয় দিনের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের সময় সিরিয়ার কাছ থেকে গোলান মালভূমির দুই-তৃতীয়াংশ দখল করে নেয়। কিন্তু আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এর কোনো স্বীকৃতি দেয়নি।